গত ২১ জানুয়ারি ভারতের মুম্বাইতে শুরু হয়েছে  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর চলচ্চিত্র 'বঙ্গবন্ধু'র শুটিং। করোনার কারণে ছোট পরিসরে মহরত করেই ছবিটির শুটিং শুরু করে দিয়েছেন পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। শুটিংয়ের অংশ নিতে এর আগে আরিফিন শুভ, চঞ্চল চৌধুরী ও দিব্যসহ সিনেমার কলাকুশলীরা সেখানে পৌছান। 

শনিবার মুম্বাই উড়াল দিলেন টিভি-সিনেমার জনপ্রিয় তারকা নুসরাত ইমরোজ তিশা। অভিনেত্রী নিজেই এ খবর নিশ্চিত করেছেন। সকাল ১১টার দিকে অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে একটি ছবি প্রকাশ করেন তিশা। সেই সেলফিতে তাকে উড়োজাহাজে দেখা যায়। মুখে ছিল মাস্ক। ক্যাপশনে তিনি লিখেন, ‘বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের শুটিংয়ের জন্য মুম্বাই যাচ্ছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।’

ছবিতে বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের চরিত্রে অভিনয় করবেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। আর ছোটবেলার চরিত্রে থাকছেন ফারদিন প্রার্থনা দিঘী। সেই প্রস্তুতি নিয়েছেন এতদিন। এখন অপেক্ষা লাইট, ক্যামেরা, অ্যাকশনের।

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হচ্ছে এই বায়োপিক। টানা আড়াই মাস মুম্বাইয়ে ছবিটির শুটিং চলবে। এরপর বাকি অংশের শুটিং হবে বাংলাদেশে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষের কর্মসূচি চলতি বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে ছবিটির শুটিং শেষ করে মুক্তির পরিকল্পনা রয়েছে পরিচালক শ্যাম বেনেগালের।

গত বছর এপ্রিলে শুটিং শুরুর কথা থাকলেও করোনার কারণে কয়েকবার তা পিছিয়ে যায়। তখন বাংলাদেশে শুটিং হওয়ার কথা ছিল। এখন ভারত পর্বের পর বাংলাদেশে আসবে শুটিং ইউনিট।

চঞ্চল- শুভ-তিশা ছাড়াও এ ছবিতে অভিনয় করছেন ঢাকার একঝাঁক তারকা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোটবেলার চরিত্রে অভিনয় করবেন নুসরাত ফারিয়া।

অন্য চরিত্রগুলোয় দেখা যাবে খায়রুল আলম সবুজ (লুৎফর রহমান), দিলারা জামান (সাহেরা খাতুন), সায়েম সামাদ (সৈয়দ নজরুল ইসলাম), শহীদুল আলম সাচ্চু (এ কে ফজলুল হক), রাইসুল ইসলাম আসাদ (আবদুল হামিদ খান ভাসানী), গাজী রাকায়েত (আবদুল হামিদ), তৌকীর আহমেদ (সোহরাওয়ার্দী), সিয়াম আহমেদ (শওকত মিয়া) ও মিশা সওদাগর (জেনারেল আইয়ুব খান)।