ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪

মনোনয়ন না পেয়ে কাজের পরিধি আরও বেড়ে গেল: শাকিল খান

মনোনয়ন না পেয়ে কাজের পরিধি আরও বেড়ে গেল: শাকিল খান

আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন না শাকিল খান

বুলবুল ফাহিম

প্রকাশ: ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | ১৮:২৭ | আপডেট: ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | ২০:০৭

শাকিল খান অভিনয়ে নেই। কালেভদ্রে সিনেমার অনুষ্ঠানে দেখা মেলে তার। মাঝেমধ্যে গণমাধ্যমের মুখোমুখিও হন। স্মৃতিকাতর হয়ে বর্ণনা দেন সিনেমার স্বর্ণালী দিনের। সেই শাকিল খান এবার খবরের শিরোনাম হলেন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে। আ.লীগ থেকে (বাগেরহাট-৩) আসনে মনোনয়নপত্র তুলেছিলেন শাকিল। কিন্তু দল তাতে সায় দেয়নি। জাতীয় নির্বাচন ও অভিনয় জীবন নিয়ে তিনি কথা বলেছেন সমকালের সঙ্গে।

আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন তুলে দলের সমর্থন পেলেন না। এখন আপনার অবস্থান কী?
দলীয় মনোনয়ন পাইনি এটা নিয়ে দুঃখ বা অভিমান নেই। কারণ, আমি মনে করি আমাদের দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটাই সঠিক। তিনি সমগ্র আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশসহ বিশ্ব নিয়ে ভাবেন। তার ভাবনা বা সিদ্ধান্তকে অসম্মান করার কিছু নেই। আমাকে মনোনয়ন দেয়নি বিধায় আমার কাজের পরিধি আরও বেড়ে গেলো। মনোনয়ন পেলে হয়ত একটি জায়গা নিয়েই আমাকে থাকতে হত। এখন সারা দেশে সমানভাবে কাজ করতে পারব। 

শোনা যাচ্ছে আপনি নাকি স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করতে যাচ্ছেন?
গতকাল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছিলাম। তিনি আমাকে বলছেন, ‘শাকিল তুমি কাজ করো। তোমার দিকে আমার দৃষ্টি আছে। সামনে তোমার সময় আছে।  তোমার বিষয়টি আমি দেখব। তুমি ভালো জায়গায় আসবে।’ তার কথা শুনে আমার স্পিরিট আরও বেড়ে গিয়েছে। 

আপনার বন্ধু চিত্রনায়ক ফৌরদৌস তো দলীয় মনোনয়ন পেল, নির্বাচনে আপনি তাকে কীভাবে সহযোগিতা করবেন?
ফেরদৌস মনোনয়ন পাওয়ায় আমি খুশি হয়েছি। অবশ্যই আমি তার পাশে থাকব। কিন্তু আমাকে ডাকতে হবে। না ডাকলে কীভাবে যাবো।

এর আগে শিল্পীদের মধ্যে অনেকেই এমপি-মন্ত্রী হয়েছেন। তাদের সিনেমা দিকে খুব একটা মনোযোগী হতে দেখা যায়নি....
এটা আসলে সত্য কথা। এর আগে যারা এমপি-মন্ত্রী তারা কিন্তু ফিল্মের বিষয়ে খুব একটা পদক্ষেপ নেননি। আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেই দায়িত্ব পেয়েছেন কিন্তু তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেননি। যদি তারা সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতেন তাহলে আমাদের ফিল্মের এমন দুরবস্থা দেখতে হতো না। দেশপ্রেম ছিলো বলে আমরা ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছি। সুতরাং ফিল্মের মানুষ এখানে না আসছে উন্নতিটা কীভাবে হবে।

এবার সিনমা প্রসঙ্গে আসি, হুট করেই সিনেমা থেকে দূরে চলে গেলেন। এর পেছনে কারণ কী ছিল?
দেখুন, সেই সময় অশ্লীলতা চরমে উঠে গিয়েছিলো। হলে হলে কাটপিস চলতো। এটার জন্য আমারা রাস্তায় আন্দোলন করেছি। আমি যখন ফিল্ম ছেড়ে দিয়েছি তখন মনে করেছিলাম আমি এই সমাজের কাছে দায়বদ্ধ। আমি খারাপ কাজ করে হয়ত কিছু টাকা পাব কিন্তু একটা সময় গিয়ে সেই খারাপ কাজের কারণে মানুষ আমাকে ধিক্কার দেবে। খারাপ কাজ করব না বলেই নিজেকে সিনেমা থেকে গুটিয়ে নিয়েছি।

১৫ বছর হলো সিনেমা থেকে দূরে আছেন, অভিনয় কি এখন টানে না?
আমার পরিচয় কিন্তু সিনেমার মাধ্যমে। দেশবাসী সিনেমার জন্যই আমাকে চেনেন। ফিল্মের সঙ্গে আমার সম্পৃক্ততা ছিলো যা আমি পরিপূর্ণ করতে পারিনি বাজে পলিটিশিনাদের কারণে। একটি দুটি করে ১০০টির বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছি।  অভিনয় তো টানবেই।

এখন যদি কোনো সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব আসে করবেন?
এখন বিক্ষিপ্তভাবে কিছু ভালো চলচ্চিত্র  তৈরি হচ্ছে। এটা ভালো অবশ্যই ভালো দিক। সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব যে এখন আসে না তা কিন্তু নয়। এখনো আসে। কিছুদিন আগে এক নির্মাতা এসেছিলেন। বলেছি পরে জানাব। ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর ইচ্ছে যে নেই তা নয়। ইচ্ছে আছে। ভালো কাজ করার ইচ্ছে তো সবারই থাকে। ভালো কাজ পেলে অবশ্যই অভিনয় করব। তবে যখন করব তখন তো সবাইকে জানিয়েই করব।

আরও পড়ুন

×