'তখন মফস্বলে থাকি। একদিন হুট করে নতুন সিদ্ধান্ত নিলাম। ভাবলাম ঢাকায় গিয়ে মিডিয়ায় কাজ করব। তখন আমার বয়স ১৮ বছর। কিন্তু মা-বাবা চাইতেন না তাদের ছেলে মিডিয়ায় কাজ করুক। তাই পরিবার থেকে কিছুতেই সায় মিলল না। সংসারে ছোট ছিলাম বলে অনেক আদর পেতাম। সেই আদরের মায়াজাল থেকে বেরিয়ে পরিবারের অমতে আশপাশের কাউকে কিছু না জানিয়ে ২৫৭ টাকা নিয়ে ঢাকায় আসি।'

ঢাকাই সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক আরিফিন শুভ এক সাক্ষাৎকারে মিডিয়ায় কাজের শুরুর দিকের কথা এভাবেই অকপটে বলছিলেন।  ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার আংগারগারা গ্রামের ছেলে তিনি। তবে চলচ্চিত্র নিয়ে ব্যস্ত হওয়ার পর তার এখন গ্রামে যাওয়া হয় কম। 

২৫৭ টাকা নিয়ে ঢাকায় আসা এই শুভ এখন বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক। তিনি এখন কত সম্পদের মালিক সে হিসাবে জানা না গেলেও নিজের ফ্ল্যাট, গাড়ি ও টাকা নিয়ে বেশ আলীশান জীবন যাপন তার। তবে আর্থিক সাফল্য ছাপিয়ে শুভর যে সফলতা চোখে পড়ে তা হচ্ছে তিনি এখন দেশের একজন নামিদামী স্টার। 

আজ এ নায়কের জন্মদিন। বিশেষ দিনটাও অ্যাকশন-কাটের মধ্য দিয়েই যাচ্ছে। মুম্বাইতে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকে 'বঙ্গবন্ধু' চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হচ্ছে ছবিটি। শ্যাম বেনেগাল পরিচালিত ছবিটির শুটিং গত ২৫ জানুয়ারি শুরু হয়েছে মুম্বাইয়ের দাদা সাহেব ফালকে স্টুডিওতে। 

ছবিটি হতে যাচ্ছে শুভর ক্যারিয়ারে অন্যতম সেরা অর্জন। যদিও এক সাক্ষাৎকারে শুভ বলেছিলেন, তার ক্যারিয়ারে কোন অপূর্ণতা নেই। জীবনে যতটা পাওয়ার ছিলো তার বেশিই পাওয়া হয়েছে তার।   

শুভ বলেন, '১০ বছর যদি সিনেমার ক্যারিয়ার হয়, তার আগেও তো আমার আরেকটা লম্বা ক্যারিয়ার আছে টেলিভিশনে, মডেলিং, রেডিওতে। আমার জীবনে যতটুকু পাওয়ার ছিল, তার চেয়ে অনেক অনেক বেশি পেয়ে গেছি। আমার কোনো রিগ্রেট নেই।’

র‌্যাম্প মডেল দিয়ে মিডিয়াতে যাত্রা করা শুভর টিভি নাটকের যাত্রা 'হ্যাঁ না' নাটক দিয়ে। এর পর বহু নাটক ও টেলিছবিতে অভিনয় করেছেন। একসময় সিনেমায় অভিনয়ের সিদ্ধান্ত নেন। ছেড়ে দিন ছোটপর্দায় অভিনয়। কিন্তু শুরুতেই হোঁচট খেতে  হয় তাকে। অভিনেতা ও নির্মাতা সালাহউদ্দিন লাভলুর পরিচালনায় 'ওয়ারিশ' নামে একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন প্রথমে। ছবিটি করতে গিয়ে অনেক প্রস্তুতি নিতে হয়েছে। রাজধানীর একটি হোটেলে বেশ ঘটা করে সবাইকে জানান দেওয়া হয় সে খবর। কিন্তু ছবিটি আর হয়নি। 

পরে  খিজির হায়াত খানের 'জাগো' ছবি দিয়ে সিনেমায় অভিষেক হয় শুভর। খুলে গেল ভাগ্যের দুয়ার। ওই ছবিতে চরিত্রটি ছোট হলেও দর্শকের কাছ থেকে বেশ প্রশংসা পায়।

দশ বছরের সিনেমা ক্যারিয়ারে ২৩টি ছবিতে অভিনয় করেন শুভ। সিনেমার অভিনেতা হিসেবে রাষ্ট্র শুভকে সর্বোচ্চ সম্মাননা দিয়েছে। 'ঢাকা অ্যাটাক' ছবির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান শুভ। 

মন্তব্য করুন