নতুন বছরের শুরুতেই  নতুন ছবির ঘোষণা দিয়েছেন নায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিল। নতুন ছবির নাম ‘নেত্রী: দ্য লিডার’। বর্ষাকে মূখ্য চরিত্র করে নির্মিত হবে ছবিটি। একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে থাকছেন অনন্তও।  

ঘোষণার একদিনির মাথায় ছবিটির নির্মাতা নিয়ে উঠছে বিতর্ক। সমকালকে পাঠানো এক বিবৃতিতে পরিচালক ইফতেখার চৌধুরী ‘নেত্রী-দ্য লিডার’ চলচ্চিত্র থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা জানান। অথচ অনন্ত জলিল ছবিটির মহরতের জন্য যে নিমন্ত্রণ পত্র শুক্রবার সমকালে পাঠানে সেখানে ছবিটির পরিচালক হিসেবে ইফতেখারের নাম নেই। ছিলো তেলেগু নির্মাতা উপেন্দ্র মাধবের নাম। 

বিষয়টি তোলতেই পরিচালক ইফতেখার চৌধুরী জানান, তার সঙ্গে প্রাথমিকভাবে মৌখিক আলাপ হয়। ছবিটি আমি নির্মাণ করছি বলে খবরও প্রকাশ করে।

বিষয়টি নিয়ে অনন্ত জলিলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ' শুরুতেই বলি নেত্রী- দ্য লিডার এক‌টি আন্তর্জা‌তিক প্রজেক্ট। এটি নির্মাণ করবেন  তেলেগু নির্মাতা উপেন্দ্র মাধব। আর বাংলাদেশ থেকে আমি। ছবিটি চুক্তি হওয়ার আগেই কেনো ইফতেখার সাহেব ছবিটি ছেড়ে দিয়েছেন বলে জানাচ্ছেন সেটা আমার জানা নেই। চুক্তি হলে একটা কথা ছিলো।   চু‌ক্তি না হওয়া পর্যন্ত সেই ছবিটি ব্যস্ততার কার‌ণে ছে‌ড়ে দি‌য়ে‌ছি- এটা বলা যায় না। আর যেখা‌নে কো‌নও চু‌ক্তিই হয়‌নি, সেখা‌নে ছে‌ড়ে দেওয়ারও কথা আসে না।' 

অন্যদিকে ফেসবুক মেসেঞ্জারে পাঠানো এক বার্তায় ইফতেখার চৌধুরী জানান, ‘সাংবাদিক ভাইদের দৃষ্টি আকর্ষন করছি নেত্রী- The Leader সিনেমার ডিরেক্টর হিসাবে যারা আমার নাম তুলেছেন তাদের বলছি যে, নেত্রী- The Leader সিনেমা আমার পরিচালনা করার কথা ছিল কিন্তু মুক্তি সিনেমা নিয়ে ব্যস্ততার কারনে আমি নেত্রী- the leader এর কাজ ছেরে দিতে বাধ্য হয়েছি।’ আর ‘মুক্তি’ শেষ করে ‘লন্ডন লাভ’ সিনেমার কাজ শুরু করবো।'

বাংলাদেশ ও তুরস্কের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিতব্য ছবিটির জন্য পরিচালক হিসেবে ইতোমধ্যে তেলেগু নির্মাতা উপেন্দ্র মাধবকে নেওয়া হয়েছে।  ছবির বাংলাদেশ অংশের পরিচালক হিসেবে অনন্ত জলিলই থাকছেন, তুরস্কের পরিচালক এখনও চূড়ান্ত করা হয়নি।

চিত্রনায়িকা বর্ষা ছাড়াও দক্ষিণ ভারতের তিন অভিনেতা রবি কিষান, প্রদীপ রাওয়াত ও কবির দুহান সিংকে চূড়ান্ত করা হয়েছে।

রবি কিষান এর আগে উপেন্দ্র মাধবের চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন। উপেন্দ্রর ‘এমএলএ’ ছাড়াও ‘লাকি : দ্য রেসার’, ‘বাটলা হাউজ’, ‘তেরেনাম’সহ বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন রবি কিষান।

আমির খানের সুপারহিট চলচ্চিত্র ‘গজনী’-তে খলঅভিনেতার চরিত্রে অভিনয় করে পরিচিতি পেয়েছেন প্রদীপ রাওয়াত।

আরেক খল অভিনেতা কবির দুহান সিং খল তেলেগু চলচ্চিত্রের পাশাপাশি তামিল ও কন্নড় ভাষার চলচ্চিত্রে কাজ করছেন। যিনি কিক-২, ভেদালাম, ডিক্টেটর, সরদার গাব্বার সিংসহ বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করে হয়েছেন প্রশংসিত।