সম্প্রতি পর পর খবরের শিরোনাম হচ্ছেন সানি লিওন। সম্প্রতি দুটি অনুষ্ঠানের জন্য ২৯ লাখ টাকা নিয়েও অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে না পাওয়ায় মামলার মুখে পড়েন সানি লিওনি এবং তার দুই সহযোগী। বিষয়টি সুরাহা হতে না হতেই গুণ্ডাদের কবলে পড়লেন সানি । 

সানি লিওন বর্তামানে ‘অনামিকা’ এর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত। এই ওয়েব সিরিজের শুটিংয়ের সময় গুণ্ডাদের হানা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, শুটিং সেটে গুণ্ডাবাহিনী প্রবেশ করে ৩৮ লাখ রুপি দাবি করে এবং এ ঘটনায় আতঙ্কিত হয় পরিচালক।

১২ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় গণমাধ্যম জি-নিউজ এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন জানানো হয়, ঘটনার অবস্থা যখন বেগতিক ঠিক সেই সময় সানি লিওন কোনোভাবে নিরাপদ জায়গায় চলে যান। এ ঘটনায় সেদিন শুটিং পর্যন্ত বন্ধ রাখা হয়। পরবর্তীতে অন্য জায়গায় শুটিংয়ের জন্য অনুমতি নেয় পরিচালক।

তবে প্রতিবেদনে যাদের গুণ্ডা বলা হচ্ছে তারা হচ্ছেন খ্যাতনামা অ্যাকশন পরিচালক আব্বাস আলি মুঘলের দলবল। তারা সকলেই ফাইটার অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে জড়িত। ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদন বলছে, হঠাৎ করে শুটিং সেটে এসে পরিচালক বিক্রম ভাটের কাছে ৩৮ লাখ টাকা দাবি করেন তারা। এর আগে বিক্রম ভাটের সঙ্গে ৮টি প্রোজেক্টে কাজ করেছিলেন আব্বাস আলি মুঘল। তারই পারিশ্রমিক হিসেবে এই টাকা দাবি করা।

এ বিষয়ে মুঘল জানিয়েছে, এমন পরিস্থিতিতে হতবাক হয়েছি। ঠিক তখন কি করা উচিত আমার- তা বুঝতে পারছিলাম না। তবে এ ধরনের হামলার জন্য মুঘলকে ইতোমধ্যে আইনি চিঠি পাঠিয়েছেন পরিচালক বিক্রম ভাট।

ঘটনা যাইহোক ফাইটার অ্যাসোসিয়েশনের লোকজন সমস্যা সমাধান করতে পেরেছে বলে জানান মুঘল। 


মন্তব্য করুন