'ও চোখে চোখ পড়েছে যখনি...' গাজী মাজহারুল আনোয়ারের কথায় গানটি সুর করেন আজাদ রহমান। গেয়েছেন খুরশীদ আলম ও সাবিনা ইয়াসমিন। গানটি ব্যবহার করা হয় 'অনন্ত প্রেম' ছবিতে। বাংলা সিনেমার কালজয়ী প্রেমের গান এটি। এতে ঠোট মিলিয়েছেন রাজ্জাক ও ববিতা। 

সমকালের সঙ্গে আলাপে গানটি চলচ্চিত্রায়নের সময়ের কথা জানান অভিনেত্রী ববিতা। তিনি বলেন, ''কাপ্তাইয়ে 'অনন্ত প্রেম' ছবির গান 'ও চোখে চোখ পড়েছে যখনি' শুটিং করেছি। গীতিকার গাজী মাজহারুল আনোয়ারের কথায় কী অসাধারণ সুর করেন আজাদ রহমান। ১৯৭৮ সালে ছবিটি মুক্তি পায়। এখনও গানের দৃশ্য ধারনের স্মৃতি চোখে জ্বলজ্বল করে। যেখানে গানের দৃশ্যধারন হয়, সেখানে যেতে সময় লেগেছিল দুই-তিন ঘণ্টা। জঙ্গল-পাহাড় পেরিয়ে লোকেশনে যেতে হয়। তিনদিন ধরে এর শুটিং করেছি।''

'অনন্ত প্রেম' ছবিটি পরিচালনা করেন নায়করাজ রাজ্জাক। ছবির নায়কও তিনি। মজার বিষয় হচ্ছে জনপ্রিয় এ গানটির জন্য কোনো নৃত্যপরিচালক ছিলেন না। নায়করাজ রাজ্জাক ও ববিতার পরিকল্পনাতেই গানের দৃশ্যধারন হয়।

ববিতা বলেন, ''গানটিতে কোনো নৃত্য পরিচালক ছিলেন না। আমার ও রাজ্জাক ভাইয়ের পরিকল্পনাতেই শুটিং হয়। রাজ্জাক ভাই বলেন, ববিতা তুমি গানের দৃশ্যটি নিজে নিজে করতে পারবে? বললাম, আপনি যদি সাহস দেন তাহলে পারব। তিনি আরও বলেন, নৃত্য পরিচালক হিসেবে আমার নাম যাবে পর্দায়! বেশ কিছু ছবিতে অভিনয়ের কারণে নাচের অভিজ্ঞতা ছিল বলেই সাহস করে নেচেছি।''

ববিতার জন্য একটি পালকির ব্যবস্থা করা হয়, যে পালকিতে চড়ে শুটিং যেতে হয়েছে তাকে। ববিতা বলেন, ''রাজ্জাক ভাই আমার জন্য একটি পালকি জোগাড় করেন। সেটিতে চড়ে শুটিংয়ে যেতাম। দিনদুপুরে মানুষকে আটকিয়ে মুক্তিপণ আদায় করা হতো, তাই ভয়ে ভয়ে শুটিং করেছি। পুরো ছবিই শুটিং হয় কাপ্তাইয়ে।