সুন্দরবনে র‍্যাবের কিছু দুঃসাহসিক কিছু অভিযান নিয়ে ‌'ঢাকা অ্যাটাক' ছবির পরিচালক দীপংকর দীপন নির্মাণ করছেন ‘অপারেশন সুন্দরবন'। ছবিটি এ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে দেশের মানুষ জানতে পারবে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) কীভাবে সুন্দরবনকে দস্যু মুক্ত করেছে। জেলেরা কীভাবে দস্যুদের কবলে পড়ে এবং সাধারণ মানুষ কীভাবে দস্যু হয়ে যায়। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ছবিটির টিজার প্রকাশ ও ওয়েব সাইট উন্মোচন অনুষ্ঠান হয় রাজধানীর আর্মি গলফক্লাবে। সেখানেই ছবিটি আগামী ঈদুল আজহায় মুক্তি পাবে বলে জানানো হয়। 

ছবিটি ২০২০ সালে ঈদুল আজহায় মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু করোনার কারণে সেটা সম্ভব হয়নি। ছবিটির কাজ পুরোপুরি  শেষ। তাই ছবিটি এবার আগামী কোরাবানির ঈদে মু্ক্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রযোজনা সংস্থা। 

‘অপারেশন সুন্দরবন’-এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিয়াম আহমেদ, রোশান ও নুসরাত ফারিয়া। সিয়াম ও রোশান র‍্যাব কর্মকর্তার চরিত্রে আছেন। এজন্য দুজন র‍্যাব হেডকোয়ার্টারে বিশেষ প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। নুসরাত ফারিয়া অভিনয় করেছেন একজন বাঘ গবেষক হিসেবে। ছবিটিতে আরও আছেন রিয়াজ ও তাসকিন রহমান।

ছবিটি নিয়ে দীপংকর দীপন বলেন,  ‌'অপারেশন সুন্দরবন মুভিটির মাধ্যমে র‌্যাবের সুন্দরবনের দুঃসাহসিক সব অভিযানের পাশাপাশি এখানকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে তুলে ধরা হয়েছে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ বন সুন্দরবনে একসময় দস্যুদের অবাধ বিচরণ ছিল। যার ফলে সুন্দরবন নিয়ে সাধারণ মানুষের ভয় ছিল। সুন্দরবনের মানুষ জীবিকা নির্বাহের জন্য মাছ ধরা ও মধু সংগ্রহ করতে পারত না। এখন সুন্দরবন দস্যুমুক্ত। র‌্যাবের এই দুঃসাহসিক অভিযানকে উপজীব্য করেই নির্মিত হয়েছে ‘অপারেশন সুন্দরবন। আগাশী কোরবানির ঈদে মুক্তি পাচ্ছে।'

‘অপারেশন সুন্দরবন’ প্রযোজনা করছে র‍্যাব ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট। এর চিত্রনাট্য করেছেন নাজিম উদ দৌলা। 

দীপনংকর দীপন পরিচালিত প্রথম ছবি 'ঢাকা অ্যাটাক'। ২০১৭ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ছবিটি চারটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে। এছাও 'ঢাকা ২০৪০' নির্মাধীন রয়েছে এই পরিচালকের।