সৈয়দ আবদুল হাদী। বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী ও উপস্থাপক। তার উপস্থাপনায় বিটিভিতে প্রচার হচ্ছে সংগীতানুষ্ঠান 'স্মৃতিময় গানগুলো'। এ আয়োজন, বর্তমান ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে তার সঙ্গে কথা-

কয়েক বছর ধরে উপস্থাপনা করছেন। কিন্তু সংগীতবিষয়ক অনুষ্ঠানের বাইরে কাজ করতে দেখা যায়নি, এর কারণ কী?

গানের মানুষ বলেই উপস্থাপনার জন্য অন্য কোনো আয়োজন নিয়ে ভাবিনি। তরুণ শিল্পীদের জন্য একটা প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতে চেয়েছি, যেখানে দেশ-বিদেশের কালজয়ী গান গাওয়ার সুযোগ পাবে তারা। এতে ভালো গান সম্পর্কে ধারণা ও চর্চারও সুযোগ হবে। সেই ভাবনা থেকে 'গানে গানে দেশে দেশে' অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনা। বিটিভির 'স্মৃতিময় গানগুলো' অনুষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পেছনের উদ্দেশ্য একটাই, সমকালীন শ্রোতাদের নানা দশকের কালজয়ী গান শোনার সুযোগ করে দেওয়া।

আপনার প্রতিটি আয়োজনে তরুণদের প্রাধান্য দেওয়ার পেছনে বিশেষ কোনো কারণ আছে?

তরুণদের পাশে থাকতে চাই সব সময়। তারকা কিংবা প্রতিষ্ঠিত শিল্পীদের তো সুযোগের অভাব নেই। সেদিক থেকে নতুনদের গড়ে ওঠার জন্য যেটুকু সুযোগ থাকা দরকার, তা খুব একটা চোখে পড়ে না। এ জন্য যখনই নতুন কোনো আয়োজন করেছি, সেখানে তরুণদের সুযোগ করে দিয়েছি।

টিভি আয়োজনের বাইরে কি তরুণদের জন্য কিছু করার ইচ্ছা আছে?

টিভি আয়োজনের বাইরেও নতুন শিল্পীদের সাধ্য অনুযায়ী সহযোগিতা করি। আমি গানের শিক্ষকতা করি না ঠিকই, কিন্তু সংগীত বিষয়ে কেউ কিছু জানতে বা শিখতে চাইলে সব সময় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিই। নতুনদের জন্য কিছু করা দায়িত্ব বলেই মনে করি।

শুনলাম, এবার ১০টি মৌলিক গান প্রকাশের পরিকল্পনা করছেন?

পরিকল্পনা আমার নয়, ইমপ্রেস মিউজিকের কর্মকর্তাদের। কিছুদিন আগে তারা আমাকে ১০টি মৌলিক গান করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। সেই প্রস্তাবে সাড়াও দিয়েছি। কারণ আমি যতদিন সুস্থ ও স্বাভাবিক আছি, ততদিন গান গেয়ে যেতে চাই। আমৃত্যু গানের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে রাখব- এটা আমার ভাবনা। যে জন্য ইমপ্রেস মিউজিক থেকে প্রস্তাব পাওয়ার পর নিজেও প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করেছি। এর মধ্যে বেশ কিছু গানের সুর করা হয়ে গেছে। একে একে সেগুলো রেকর্ড করা হবে। এরপর গানগুলো কবে কীভাবে প্রকাশ পাবে, সেটা ঠিক করবে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান।

'দ্য লিজেন্ড সৈয়দ আবদুল হাদী'র মতো কালজয়ী গানের নতুন কোনো সংকলন নিয়ে কিছু ভাবছেন?

ইচ্ছা ছিল এই অ্যালবামের আরেকটি খণ্ড প্রকাশের। কাজও শুরু করেছিলাম। কিন্তু করোনার জন্য কাজ পিছিয়ে গেছে। এখন দেখা যাক, পুরোনো গানগুলো কবে নাগাদ নতুন করে প্রকাশ করতে পারি।

বিষয় : সৈয়দ আবদুল হাদী সংগীত শিল্পী

মন্তব্য করুন