ভারতের  ব্যাডমিন্ট তারকা সাইনা নেওয়ালের জীবনীভিক্তিক সিনেমা ‘সাইনা’। এই ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া। 

মঙ্গলবার নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘সাইনা’-র পোস্টার ও ৩৪ সেকেন্ডের টিজার প্রকাশ্যে আনেন পরিণীতি চোপড়া। এরপর সেই পোস্টার ও টিজার শেয়ার করেন খোদ সাইনা নেওয়াল সহ বায়োপিকের সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য কলাকুশলীরা।

এরপরেই নেটিজনেদের একাংশের কটাক্ষের পরে 'সাইনা'। পোস্টারে অবশ্য দেখা যাচ্ছে না পরিণীতির মুখ। হাতে তেরঙ্গার ব্যান্ড পরে শাটল ককের স্টাইলে বায়োপিকের নাম শুধুমাত্র দেখা গেছে। 

এই পোস্টার দেখেই নেটিজেনদের ভাষ্য, এইভাবে শাটলকক সার্ভ করা হয় না। বরং টেনিস বল এইভাবে আকাশের দিকে ছুঁড়ে সার্ফ করার পদ্ধতি রয়েছে। আবার অনেকেই প্রশ্ন করে বসেন, এই বায়োপিক সাইনা নেওয়ালের নাকি সানিয়া মির্জার? 

সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়াল জুড়ে একাধিক কমিক মিমে বলা হচ্ছে একটাই কথা, ‘টেনিস বলই সাধারণত এইভাবে আকাশের দিকে হাত খুলে সার্ভ করা হয়, কিন্তু ব্যাডমিন্টনের শাটলকক আন্ডারহ্যান্ড সার্ভ করা হয়।’ সেই পদ্ধতিগত ভুলটা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল নেটিজেনরা। 

অমল গুপ্ত ছবিটির পরিচালক। সায়না নেওয়ালের চরিত্রে অভিনয় করছেন পরিণীতি চোপড়া। পরেশ রাওয়াল পরির বাবা হিসেবে থাকবেন। আর মানব কাউল অভিনয় করবেন কোচ হিসেবে।  আগামী  ২৬ মার্চ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে  'সাইনা'। 

অবশ্য এই ছবির শুটিং করতে গিয়ে ব্যাডমিন্টনের অনেক কৌশল শিখতে হয়েছিল পরিণীতিকে। চার মাস ব্যাডমিন্টন কোর্টে ঘাম ঝরিয়েছেন পরিণীতি, যাতে কোনো রকম খুঁত ধরা না পড়ে। শিখেছেন এই খেলার খুঁটিনাটি। এমনকি সায়না নেওয়ালের বাড়িও গেছেন। বাড়িতে কীভাবে সায়না সময় কাটান, তা দেখার জন্য এক দিন তার সঙ্গে পুরো সময় কাটিয়েছেন। এরপরই রামশেঠ ঠাকুর ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্সে ছবির শুটিংয়ে নেমেছেন। পাশাপাশি খেলার চর্চাও চলেছে প্রতিদিন।

সেইসময় চোট পেয়ে বাধ্য হয়ে শুটিং থেকে কিছুদিনের জন্য বিরতি নিতে হয়েছিল তাকে। অবশেষে সব বাধা পেরিয়ে বড় পর্দায় মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে ‘সাইনা’। সূত্র: এবিপি আনন্দ