লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকদের অসহায়ত্ব দেখে প্রাণ কেঁদে উঠেছিল বলিউড তথা দক্ষিণী তারকা সোনু সুদের। তাই তাদের দুঃখে ছুটে গেছেন এই অভিনেতা। বলিউডের খানদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে করোনাকালে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন ৪৭ বছর বয়সী এই তারকা।

আর তার এই উদ্যোগ প্রশংসিত হয়েছে গোটা মহলে। বলিউডে বক্স অফিসে ছবির ব্যবসা দিয়েই মাপা হয় তারকাদের যশ, খ্যাতি। কিন্তু কেবল অভিনয়, গ্ল্যামার বা পেশাদারি সাফল্য নয়, মানবিকতা দিয়েও যে অনায়াসে মন জয় করা যায় তা শেখালেন সোনু সুদ। 

তারই সন্মানে আস্ত একটা বিমানের গায়ে তার বিশাল বড় প্রতিকৃতি আঁকা হয়েছে। সঙ্গে লেখা, ‘রক্ষাকর্তা সোনু সুদকে সম্মান জানাতে।

সেই ছবি অবশ্য সোনু তার  টুইটারে শেয়ার করতে ভোলেন নি।  তিনি লিখলেন, ‘অসংরক্ষিত টিকিটে মোগা থেকে মুম্বাই আসার সেই দিনগুলো মনে পড়ছে।'

এছাড়াও এসডিজি স্পেশাল হিউম্যানিটারিয়ান অ্যাকশন অ্যাওয়ার্ডও দেওয়া হয়েছে তাকে। জাতিসংঘের পক্ষ থেকে এই অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে অভিনেতাকে। শুধু তাই নয়, গত মাসে উত্তরাখণ্ডে বাবা হারানো চার সন্তানের লেখাপড়ার দায়িত্ব নিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলেন তিনি।

প্রায় দুই দশক ধরে দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি ও বলিউড দুনিয়ায় দাপটের সঙ্গে কাজ করছেন সোনু। পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য সোনুর এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন অমিতাভ বচ্চন, অজয় দেবগনসহ আরও অনেক বিটাউন তারকা। শ্রমিকদের তাদের বাসায় ফেরানোর পাশাপাশি তাদের খাওয়াদাওয়ার দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন তিনি। সোনুর এই অভিনব উদ্যোগের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে তাঁর মূর্তি গড়ে তোলা হচ্ছে। এমনকি নবজাতকের নামও সোনু রাখা হয়েছে। সূত্র: এবিপি আনন্দ