আইয়ুব বাচ্চু নেই। তিনি না থাকায় নেই তার এলআরবি। জনপ্রিয় এ ব্যান্ডকে আর হয়তো দেখাও যাবে না। কারণ আইয়ুব বাচ্চু চলে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যান্ডদলটিকে বিলুপ্ত ঘোষণা করছে বাচ্চুর পরিবার। সেটা নানা কারণে। কিন্তু আক্ষরিক অর্থে আইয়ুব বাচ্চুর এলআরবি না থাকলেও কোটি কোটি দর্শক-শ্রোতার হৃদয়ে রয়েছে এলআরবি।

শ্রোতাদের কাছে আইয়ুব বাচ্চু ও এলআরবি যেনো একই সুতোয় গাথা। ১৯৯০ সালের আজকের এই দিনে ব্যান্ডতারকা ও গিটার লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুর হাত ধরে ব্যান্ডটির যাত্রা হয়। গানপাগল মানুষটি ২০১৮ সালে পৃথিবী ছেড়ে চলে যান। জীবনের সবটুকু তিনি উজার করে দিয়েছিলেন নিজের গড়া এই ব্যান্ডের জন্য।

ব্যান্ডটির জন্মদিন উপলক্ষে দলটিকে স্মরণ করলেন আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে আহনাফ তাযওয়ার আইয়ুব (জুনিয়র এবি)। উৎসর্গ করলেন ‘নিরবে’ গানটি। তাযওয়ারের গিটারে কভার করা গানটির প্রশংসা হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

গানটি এলআরবির অফিসিয়াল পেজ থেকে শেয়ার দিয়ে ক্যাপশনে লেখা হয়, ‘এলআরবির জন্মদিনে শুভেচ্ছা। প্রতি বছর দিনটি পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী ব্যক্তিটির জন্য আসে। আমি নিশ্চিত, এখন তিনি হাসছেন। তাদের সংগীত সারাজীবন বেঁচে থাকবে।'

১৯৯১ সালের ৫ এপ্রিল যাত্রা করা এলআরবি ১৪টি অ্যালবাম প্রকাশ করে। তবে দলটির প্রতিষ্ঠাতা আইয়ুব বাচ্চু প্রয়াত হওয়ার পর দেখা দেয় নানা সংকট। 

গত বছর আইয়ুব বাচ্চুর দুই সন্তান ফাইরুয সাফরা আইয়ুব ও আহনাফ তাযওয়ার আইয়ুব জানান, এখন থেকে পরিবারের অনুমতি ছাড়া কার্যত কেউই ব্যান্ডটি নিয়ে কাজ করতে পারবেন না। কারণ এলআরবির স্রষ্টা আইয়ুব বাচ্চু মৃত্যুর আগে ২৩টি অ্যালবাম ও ব্যান্ড নিজের নামে নিবন্ধন করে গেছেন। কপিরাইট আইনও বলছে, সন্তান ও পরিবারের মতকেই প্রাধান্য দিতে হবে।

এদিকে আইয়ুব বাচ্চুর সৃষ্টিকর্ম সংরক্ষণ করার জন্য নানা উদ্যোগ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে তার পরিবার। 


মন্তব্য করুন