চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়ার দুই শতাধিক পোশাক বস্তির নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী কোরবানির ঈদের আগে এই জামা তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। 

ছবির শুটিং করতে নুসরাত ফারিয়া নিজেই বেছে বেছে পোশাক কেনেন। শুটিংয়ের পর সেই পোশাক আর তেমন পরা হয় না তার। এমন দুই শতাধিক পোশাক গত ৩১ মে ফারিয়ার কাছ থেকে সংগ্রহ করেছে 'সুইচ-বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন' নামে একটি সংগঠন। সংগঠনটির পক্ষ থেকে ওইসব পোশাক ঢাকা উদ্যানে বস্তির সুবিধা বঞ্চিতদের মাঝে বিলি করা হবে। ‘সুইচ বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের’ প্রধান সমন্বয়ক মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি জানিয়েছেন । 

তিনি জানান, “তারকারা গরিব মানুষের পাশে দাঁড়ালে সাধারণ মানুষ আরও বেশি উৎসাহিত হয়। এ কারণে আমরা জনপ্রিয় এই শিল্পীকে বিষয়টি জানিয়েছিলাম। তিনি আমাদের আহ্বানে সাড়া দিয়েছেন। ‘১০ টাকায় কাপড়’ নামে বিশেষ প্রকল্পের আওতায় এগুলো বস্তির মানুষের মাঝে বিতরণ করা হবে।”

নুসরাত ফারিয়া বলেন, ‘শুটিংয়ের জন্য অনেক কাপড় কেনা হয়, যেগুলো পরে আর ব্যবহার করা হয় না। আবার একবারের বেশি পরাও হয় না- এমন সব পোশাক দিয়েছি। শুনেছি গরিবদের জন্য তাদের এই প্রকল্পে এ ধরনের পোশাকই (নতুন বা কম ব্যবহৃত) সংগ্রহ করা হয়। তাই দিতে পেরে সত্যিই আমার ভালো লাগছে।’

নুসরাত ফারিয়ার সর্বশেষ ছবি ‘যদি কিন্তু তবুও’। এ ছাড়া, শিগগিরই তার কলকাতার দুটি ছবির শুটিং শুরুর কথা রয়েছে।