মানসিক অবসাদ থেকে ফেসবুক লাইভে এসে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন ভারতীয় এক অভিনেতা।

বুধবার বিকেলে অভিনেতা শুভ চক্রবর্তী এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা। 

‘মঙ্গলচণ্ডী’, ‘মনসা’-র মতো একাধিক বাংলা ধারাবাহিকে কাজ করেছেন শুভ। লকডাউনে হাতে কাজ নেই। বিধবা মায়ের কাছ থেকে শুনতে হয়, ‘৩১ বছর বয়সেও আমার ছেলে বেকার’। এসব কারণেই আত্মহত্যার পথ বেছেছেন তিনি।

বুধবার বিকেলে ফেসবুক লাইভে একের পর এক ঘুমের ওষুধ খাচ্ছিলেন তিনি। ভিডিওর উপরে লেখা ‘আই কুইট’। অর্থাৎ আমি হার মেনে নিলাম। একইসঙ্গে তিনি গিটার বাজিয়ে গানও গাইছিলেন।

তার বক্তব্য, ‘মানসিক অবসাদ গ্রাস করলে মানুষ বাঁচতে চায় না। আমি কাউকে দেখানোর জন্য করছি না। আমি সত্যিই আর বাঁচতে চাই না। সমস্ত ওষুধ আমি চিবিয়ে খাচ্ছি।’

তিনি বলেন,  এতগুলো ওষুধ খাওয়ার পরেও যদি তিনি বেঁচে থাকেন, তবে তিনি ফের ফেসবুক লাইভে আসবেন।

জনৈক ফেসবুক ব্যবহারকারী স্থানীয় থানায় খবর দিতেই পুলিশ ফেসবুকের সঙ্গে যোগাযোগ করে শুভর বাড়ির ঠিকানা বের করে। অভিনেতার বাড়ি গিয়ে তাকে বাঁচাতেও পেরেছে পুলিশ। বাড়িতে শুভর মা ও দিদি ছিলেন। তারা এ সব বিষয়ে কিছুই জানতেন না।


মন্তব্য করুন