নিশো-মেহজাবিন অভিনীত 'ঘটনা সত্য' নাটকে বিশেষ শিশুদের 'বাবা-মায়ের পাপের ফল' বলে উল্লেখ করায় ভীষণভাবে মর্মাহত অভিনেত্রী ও কণ্ঠশিল্পী মেহের আফরোজ শাওন। এজন্য তিনি শোবিজের একজন কর্মী হিসেবে বিশেষ শিশুদের বাবা-মায়ের কাছে হাতজোড় করে ক্ষমা চেয়েছেন।

সোমবার রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ‘ঘটনা সত্য’ নাটকের নির্মাতা রুবেল হাসানসহ সংশ্লিষ্টদের ট্যাগে রেখে একটি স্ট্যাটাস দেন শাওন। সেখানে তিনি ওই ক্ষমা চান।

শাওন লিখেছেন, ‘আমি মেহের আফরোজ শাওন, বাংলাদেশ মিডিয়া জগতের একজন অভিনয়শিল্পী, পরিচালক এবং প্রযোজক হিসাবে সম্প্রতি প্রচারিত সিএমভি প্রযোজিত এবং নগদ নিবেদিত রুবেল হাসান পরিচালিত ‘ঘটনা সত্য’ নামক অসংবেদনশীল নাটকটির জন্য আমার পরিচিত-অপরিচিত সকল বিশেষ শিশুদের কাছে এবং তাদের মা বাবার কাছে হাতজোড় করে ক্ষমা চাচ্ছি। শিল্পী হওয়া তো দূরের কথা, ভিউ আর ফলোয়ারের পেছনে দৌঁড়াতে দৌঁড়াতে আমরা বোধহয় মানুষও হতে পারলাম না!’

এর আগে দর্শক ও নানা মহলের আপত্তি এবং প্রতিবাদের মুখে ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে নিশো-মেহজাবীন অভিনীত নাটক ‘ঘটনা সত্য’। বিশেষ শিশু ও তাদের বাবা-মার প্রতি ক্ষমা প্রার্থনা করে নাটকের নির্মাতা রুবেল হাসান বলেছেন, প্রয়োজনীয় সংশোধন করে নাটকটি ইউটিউবে ফের প্রচার করা হবে।

জীবনঘনিষ্ঠ কাহিনি নিয়ে তৈরি নাটকটির শেষ অংশের একটি বার্তা নিয়ে মূলত সমালোচনা। প্রতিবন্ধী শিশুদের 'পাপের ফল' বলে মন্তব্য করা হয় সেখানে। এতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নাটকটি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়, তুমুল আপত্তিও ওঠে।  বিভিন্ন সংগঠন থেকে প্রতিবাদ আসে। এ অবস্থায় ইউটিউব থেকে ‘ঘটনা সত্য’ সরিয়ে নেয় প্রযোজনা কর্তৃপক্ষ। 

মঈনুল সানুর চিত্রনাট্যে নির্মিত নাটকটি প্রথম সম্প্রচার হয় চ্যানেল আইয়ের ঈদ আয়োজনে। পরে সেটি সিএমভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়।  নাটকে গাড়িচালকের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ফারহান নিশো এবং গৃহপরিচারিকার ভূমিকায় মেহজাবীন।