বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠী ২৯ মিডিয়া হাউস ও ব্যক্তির বিরুদ্ধে মুম্বাই আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্তরা তার ভাবমূর্তি নষ্টের চেষ্টা করছেন বলে আদালতে জানিয়েছেন তিনি।

শিল্পার অভিযোগ শুনে বিচারপতি গৌতম প্যাটেল বলেন, শিল্পার আবেদনের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিলে সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হবে। পাশাপাশি তিনি এও জানান, পুলিশের দেওয়া তথ্য তুলে ধরলে তা মানহানিকর হতে পারে না।

এর আগে স্বামী রাজ কুন্দ্রা-কাণ্ডে বাড়িতে তল্লাশির সময় উত্তেজিত হয়ে তার সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন শিল্পা। সংবাদমাধ্যম তাদের তাদের ব্যক্তিগত মুহূর্ত তুলে ধরায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন অভিনেত্রী। তার আইনজীবী বলেছেন, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যা হয়েছে, তা জনসমুক্ষে তুলে ধরা উচিত হয়নি।

এ ব্যাপারে বিচারক প্যাটেল বলেন, শিল্পা ও রাজের মধ্যে যা ঘটেছে, তা সবার সামনেই ঘটেছে এবং পুলিশ সূত্রেই সেই খবর পাওয়া গেছে। 

শিল্পাকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, জনসমুক্ষে আপনার জীবন কেমন হবে, সেটা আপনিই বেছে নিয়েছেন। সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, শিল্পা স্বামীকে দেখে কেঁদেছেন। ঝগড়া করেছেন। এটা মানহানিকর নয়। 

বিচারক প্যাটেল পরিষ্কার জানিয়েছেন, শিল্পাকে নিয়ে সংবাদমাধ্যমের কোনও প্রতিবেদনে তার দুই সন্তানকে জড়ানো যাবে না। এটা শিল্পার গোপনীয়তা বজায় রাখার অধিকারের মধ্যেই পড়ে। সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং শিল্পার গোপনীয়তাকে সম্মান করার মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখার কথাও বলেন তিনি।