পরীমণি ইস্যুতে চলচ্চিত্র শিল্পীদের একমাত্র সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নিরবতা দেখে প্রশ্ন উঠেছে। তার বিপরীতে বৃহস্পতিবার সমিতির সভাপতি অভিনেতা মিশা সওদাগর সমকালকে জানালেন, পরীমণি ইস্যুতে শিল্পী সমিতি পর্যবেক্ষণ করছে। দুএক দিনের মধ্যেইআনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেবো আমরা।

মিশা সওদাগর বলেন, পরীমণিকে গতকাল রাতে আটক করা হয়েছে। হুট করেই তো আমরা কিছু বলতে পারি না। তাকে কি জন্য আটক করা হয়েছে তার সুনির্দিষ্ট কারণ এখনো স্পষ্ট  না। আজ তার বিরুদ্ধে মামরা দায়ের করেছে র‌্যাব। এখন সমিটির কার্যকরি পরিষদ এ ব্যাপারে সমিতির করণীয় কী তা বসে আলোচনা করে ঠিক করবে, তারপর আমাদের মতামত বা প্রতিক্রিয়া দেব। 

এর আগে বোর্টক্লাব ইস্যুতে পরীমণির পাশে ছিলেন শিল্পী সমিতি। এবার তার পক্ষে থাকার সম্ভাবনা কতটুকু জানতে চাইলে শিল্পী সমিতির এ প্রধান নেতা বলেন, পাশে থাকা না থাকার বিষয়ে আমি এখন বক্তব্য দিতে পারবো না। তবে শিল্পী সমিতি শিল্পীদের বিপদে আপদে সবসময় পাশে থাকে। পরীর বিষটা সম্মিলিত সিদ্ধান্ত নিয়েই জানানো হবে।

গতকাল পরীমনির বাসায় প্রায় ৩ ঘণ্টা র‌্যাবের নাটকীয় অভিযানের পর তাকে আটক করা হয়েছে। আটকের পর তাকে র‍্যাব-১ কার্যালয়ে নেওয়া হয়। আজ  চিত্রনায়িকা পরীমণি ও প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজসহ চারজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে র‍্যাব।

‘ভালোবাসা সীমাহীন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে চিত্রনায়িকা হিসেবে অভিষিক্ত হয় পরীমণির। তার আসল নাম শামসুন্নাহার স্মৃতি পরীমণি।