টালিউডের দুই আলোচিত তারকা নুসরাত জাহান ও যশ দাশগুপ্তকে নিয়ে আর কোনো লুকোচুরি নয়। এবার প্রকাশ্যেই এ জুটিকে হাতে হাত রেখে দেখা গেলো কলকাতার রাস্তায়। এছাড়া নুসরাত ও যশ দাসগুপ্ত বুধবার বৃষ্টিভেজা দুপুরে পার্ক স্ট্রিটের ফ্লুরিস রেস্তোরাঁয় একসঙ্গে লাঞ্চও করলেন ।

অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকার খেয়াল যে তিনি ভালোই রাখছেন, তা আর বলার অপেক্ষা লাগে না। গাড়ি থেকে নুসরাতকে হাত ধরে নামানো থেকে হাত ধরেই রাস্তা দিয়ে হাঁটা, সবই করলেন এই প্রেমিক যুগল। পার্কস্ট্রীটের এক নামী রেস্তোরাঁয় মধ্যাহ্নভোজ সেরেছেন তারা।

এদিন নুসরাত সেজে উঠেছিলেন নীল রঙের কুর্তিতে, সঙ্গে চোখে চশমা ও মেকআপহীন লুক। প্রেমিকার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই যশ পরেছিলেন হালকা ও গাঢ় নীল রঙের শার্ট।

আগামী মাসে মা হচ্ছেন নুসরাত। নীল পোশাকের ভিতর দিয়ে তার বেবি বাম্প-এর ছবিটি বেশ স্পষ্ট। 

২০১৯ সালের ১৯ জুন বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে ব্যবসায়ী নিখিল জৈনকে বিয়ে করেছিলেন নুসরাত জাহান। তুরস্কে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন গুটিকয় অতিথি। ফিরে এসে কলকাতায় একটি বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করেছিলেন নুসরাত-নিখিল। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন একঝাঁক তারকা।

প্রায় দুই বছর পর সম্প্রতি এই অভিনেত্রী দাবি করেন, বিয়ে নয়, লিভ টুগেদার করছিলেন তাঁরা। তুরস্কের বিবাহ আইন অনুসারে তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠানটি ছিল অবৈধ। এ ছাড়া হিন্দু-মুসলিম বিয়ের ক্ষেত্রে বিশেষ বিবাহ আইন অনুসারে বিয়ে করা উচিত, যা তাঁদের ক্ষেত্রে মানা হয়নি। এ কারণে তাঁদের বিয়েটা আইনগতভাবে বৈধ না। ৯ জুন এক বিবৃতিতে নুসরাত এসব জানিয়েছেন। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস