ঢাকা বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আমাকে নিয়েই বেশি পলিটিক্স হয়: আঁচল

আমাকে নিয়েই বেশি পলিটিক্স হয়: আঁচল

আঁচল আঁখি

এমদাদুল হক মিলটন

প্রকাশ: ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | ১৫:৪১

সংগীতশিল্পী সৈয়দ অমিকে বিয়ে করেছেন চিত্রনায়িকা আঁচল আঁখি। পারিবারিক আয়োজনে বিয়ে হলেও সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে। বিয়ে ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে তিনি কথা বলেছেন সমকালের সঙ্গে।

বিয়ের খবর প্রকাশ করেছেন তিন বছর পর, কেন এত গোপনীয়তা?
বিয়ের কথা তো কখনোই গোপন করিনি। আমার কাছের মানুষেরা জানত বিষয়টি।

হঠাৎ কেন বিষয়টি নতুন করে সামনে এলো?
২০২১ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি আমাদের পারিবারিক আয়োজনে বিয়ে হয়। আর গত বছরই আমি তা ফেসবুকে জানিয়েছি। কিন্তু আমার স্বামীর আগের আইডি ডিজেবল হয়ে যাওয়ার পর নতুন আইডিতে যখন দ্বিতীয়বার রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস আপডেট করি, তখনই আবার সামনে আসে বিষয়টি। এরপর এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করছেন মিডিয়াকর্মীরা। বিয়ে নিয়ে আবার কেন নিউজ হচ্ছে, তা আমার বোধগম্য নয়। একজন মানুষের কয়বার বিয়ে হবে [হাসি]! অনেকেই বলছেন, অমির সঙ্গে আমার প্রেম ছিল। বিষয়টি মোটেও সত্য নয়। মিউজিক ভিডিওর সূত্রে আমাদের পরিচয়। ২০২০ সালের ডিসেম্বর। ‘ও জান রে’ গানটির পর অমিই  আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। পরে উভয় পরিবারের সম্মতিতে বিয়ে হয়েছে।

কোথায় সংসার পেতেছেন?
রামপুরায়। বিয়ের পর থেকেই আমি অমির সঙ্গে থাকি।

কেমন চলছে সংসার জীবন?
আলহামদুলিল্লাহ। আমরা বেশ ভালো আছি। সংসারটা প্রথম থেকেই গুছিয়ে ফেলেছি। ছোটবেলা থেকেই আমি সংসারী। এখন অমার চেয়ে বেশি সংসারী আমার স্বামী। সব মিলিয়ে দিনকাল ভালোই কেটে যাচ্ছে।

ব্যক্তিগত প্রসঙ্গে অনেক কথা হলো, এবার কাজের প্রসঙ্গে আসা যাক। হাতে থাকা সিনেমার কী অবস্থা?
অনুদানের একটি সিনেমার কাজ করছি। বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত বলতে চাই না। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নিষেধ আছে। শুটিং শেষ করে জানাতে পারব। মুক্তির অপেক্ষায় ‘চিৎকার’, ‘কাজের ছেলে’, ‘রাবেয়া’, ‘এক পশলা বৃষ্টি’, ‘কর্পোরেট’, ‘চাঁদনী’, যমজ ভূতের গল্প’। এগুলো একে একে নতুন বছরে মুক্তি পাবে বলে আশা করছি।

সিনেমায় কেটে গেল এক যুগ। পেছনে ফিরে তাকালে কী দেখতে পান?
ভালো-মন্দ মিলিয়েই কেটেছে এক যুগ। ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান ও আরিফিন শুভসহ অনেক নায়কের সঙ্গে আমার কাজ হয়েছে। আমার সিনেমাগুলো দর্শক বেশ গ্রহণ করেছেন। দর্শকের ভালোবাসা পেয়েছি, এটিই পরম পাওয়া। চলার পথ খুব একটা মসৃণ ছিল না। তবে শুরু থেকেই পলিটিক্সের শিকারও হয়েছি।

সেটি কী রকম?
মিডিয়ায় একটি সিন্ডিকেট রয়েছে। এটি সবাই কমবেশি জানেন। সবাই যার যার শিল্পী নিয়ে কাজ করছে। বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয়ের বিষয়টি চূড়ান্ত হওয়ার পরও শেষ মুহূর্তে গিয়ে আমাকে বাদ দিয়ে অন্য নায়িকা নেওয়া হয়েছে। এ কারণে অনেক ভালো সিনেমাও হাতছাড়া হয়ে গেছে। সাইনিং মানি পাওয়ার পরও অনেক সিনেমা থেকে বাদ পড়েছি। সাইনিং মানির টাকাও ফেরত নেননি অনেক প্রযোজক। পরে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কথা বললে তারা নানা কথা বলে আমাকে বোঝানোর চেষ্টা করেছেন। আমাকে নিয়েই বেশি পলিটিক্স হয়, কেন হয় জানিনা। এ নিয়ে আমি কোনো প্রতিবাদও করিনি।

আরও পড়ুন

×