বিগবস তারকা সিদ্ধার্থ শুক্লার মৃত্যুর পর তার শেষযাত্রায় হাজির ছিলেন আরেক বিগবস তারকা পারস ছাবড়া।এ সময় তার প্রেমিকা মাহিরা শর্মার তার সঙ্গে ছিলেন। তখনই চোখে পড়ে বেশ কিছুটা ওজন বাড়িয়ে ফেলেছেন পারস। যা দেখে অবাক হয়েছিল তার অনুরাগীরা। 

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে পারস জানালেন, তার বাড়তি ওজনের কারণ। অবসাদ ও উদ্বেগের কারণেই এমনটা হয়েছে বলে মত তার। ঘুমের ওষুধ খেয়ে ঘুমাতে হয় তাকে।  

‘বিগ বস ১৩’ ‘স্প্লিটসভিলা’র মতো গেম শোতে দেখা গিয়েছে ফিট পারসকে। বিগ বসের ঘরে থাকতেও নতুন নতুন ফ্যাশনেবল পোশাক ও অ্যাকসেসরিজ পাঠাতেন তার প্রাক্তন প্রেমিকা। সাক্ষাৎাকের পারস জানিয়েছেন, অবসাদের কারণে তাকে যে ওষুধ খেতে হচ্ছে, সেটার কারণেই বেড়েছে তার ওজন। তবে স্বাভাবিক ভাবে এই ওজন ঝরিয়ে ফেলতে চান তিনি। কোনও ধরনের সাপলিমেন্ট নেওয়ার ইচ্ছে নেই তার। 

পারস জানান, ‘দুটো কারণে আমার ওজন বেড়েছে। আমার লিভার ইনফেকশন হয়েছিল। যার ফলে আমার গোটা শরীর ফুলে গেছে। দ্বিতীয়ত বিগ বসের ঘর থেকে বেরনোর পর আমার অ্যাংজাইটি অ্যাটাক আসছিল। যার জন্য আমাকে ওষুধও খেতে হয়েছিল। আর সেই ওযুধের প্রভাবে আমি বেশিরভাগ সময়টা ঘুমিয়ে কাটাতাম। ফলে ওজন বেড়ে গিয়েছে।’

তিনি আরও জানান, ‘শরীরচর্চার মাধ্যমে স্বাভাবিক ভাবে ওজন কমিয়ে ফেলতে চাই আমি। প্রথমে ভেবেছিলাম সাপলিমেন্টস আর হার্ডকোর জিমিং করে ওজন কমাব। কিন্তু পরে আমার বাড়ির সকলে, যারা বেশিরভাগই ডাক্তার তারা আমায় এরকম না করার পরামর্শ দেয়। তারাই আমায় বলে স্বাভাবিক ভাবে ওজন কমানোর কথা, আর আমি তেমনটাই করব।’

সিদ্ধার্থের অন্ত্যেষ্টিতে হাজির ছিলেন পারস-মাহিরা। মুম্বাই এয়ারপোর্ট থেকে দু'জনকে হাত ধরে বের হতে দেখা যায়। পরে শ্মশানেও হাজির ছিলেন তারা। পারস জানান, যেদিন সকালে সিদ্ধার্থের মারা যাওয়ার খবর পান, সেদিনকেও তার অ্যাংজাইটি অ্যাটাক এসেছিল। কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না সেই খবর।