এবার ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’ মুকুট জিতেছেন উম্মে জমিলাতুন নাইমা। শুক্রবার রাজধানীর একটি হোটেলে প্রতিযোগিতার গালা রাউন্ড অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেই  মিস আর্থ বাংলাদেশ ২০২১ বিজয়ী ঘোষণা করা হয় নাইমাকে।

‘মিস ওয়ার্ল্ড’ ও ‘মিস ইউনিভার্স’-এর পর গুরুত্বপূর্ণ সুন্দরী প্রতিযোগিতা মনে করা হয় ‘মিস আর্থ’কে। গত বছর থেকে বাংলাদেশে আয়োজন করা হচ্ছে ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতা। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও আয়োজনটি হয়। 

গালা রাউন্ডে মিস এয়ার, ফায়ার ও ওয়াটার বাংলাদেশ হিসেবে ভূষিত হন যথাক্রমে সাকিলা তানহা, পিয়াল সরকার এবং ফাহমিদা বর্ষা। এছাড়াও ফারজাহান পিয়া ও আরুশা আবিদা যথাক্রমে মিস বিউটিফুল ফেস ও মিস সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার নির্বাচিত হন।

আয়োজনটির ন্যাশনাল ডিরেক্টর নায়লা বারী ও ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ ২০২০’ বিজয়ী মেঘনা আলম এবং রোটারি ফার্স্ট লেডি রোকেয়া ফারুকী বিজয়ীদের মুকুট পরিয়ে দেন।

‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’ আয়োজকরা জানান, যোগ্যতা হিসেবে প্রতিযোগীদের শিক্ষা, মেধা, পরিবেশ চিন্তা ও উপস্থাপনার ভঙ্গিকে মানদণ্ড হিসেবে বিবেচনা করেই চলে ‘মিস আর্থ বাংলাদেশ’ প্রতিনিধি নির্বাচনের কাজ।

অনুষ্ঠানে পাট থেকে উদ্ভাবিত সোনালী ব্যাগের আবিস্কারক ড. মোবারক আহমদ খান, বিশ্ব সাহিত্যকেন্দ্রের অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুকিত মজুমদার বাবু, রোটারি ডিস্ট্রিক্ট ৩২৮১ গভর্নর মোতাসিম বিল্লাহ ফারুকী, পরিবেশ রক্ষা সংগঠক নায়লা বারী এবং পরিবেশবিদ ড. এস আই খানকে ‘ফ্রেন্ডস অব নেচার’ সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আয়োজকদের ধন্যবাদ এবং সম্মাননায় ভূষিতদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, মানব সম্প্রদায়ের একমাত্র ধারক এই পৃথিবী গ্রহকে বাঁচিয়ে রাখতে তার প্রকৃতি ও পরিবেশ রক্ষার বিকল্প নেই। এই কাজে প্রয়োজন সকলের সম্মিলিত উদ্যোগ ও টেকসই পার্টনারশিপ।