হৃদয় খান। তারকা কণ্ঠশিল্পী ও সংগীতায়োজক। সম্প্রতি নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত তার 'ভালো লাগে না' গানের অ্যাকুস্টিক ভার্সন শ্রোতার মধ্যে সাড়া ফেলেছে। এই আয়োজন, নতুন কাজের পরিকল্পনা নিয়ে কথা হয় তার সঙ্গে-

'ভালো লাগে না' গানটি নতুন সংগীতায়োজনে প্রকাশ করার পরিকল্পনা কি আগে থেকেই ছিল?

প্রথম যখন 'ভালো লাগে না' গান রেকর্ড করি, তখনও এর অ্যাকুস্টিক ভার্সন প্রকাশের পরিকল্পনা ছিল না। কিন্তু গানের একটি অ্যাকুস্টিক ভার্সন ঠিকই তৈরি করে রেখেছিলাম। আমরা যারা গান বা সংগীত নিয়ে মেতে থাকি, তারা নিজেদের সৃষ্টি নিয়ে কাটাছেঁড়া করতেই থাকি। নানা ধরনের নিরীক্ষার কথাও মাথায় আসে। সে জন্যই এ গানের দুটি ভার্সন তৈরি করা। পরিচিত যারা গানের অ্যাকুস্টিক ভার্সন শুনেছেন, তাদের অনেকে ভালো লাগার কথা জানিয়েছেন। তাই শ্রোতারা যখন নতুন সংগীতায়োজনে এই গান আবারও প্রকাশ করার কথা বলছিলেন, তখন মনে হয়েছে, 'ভালো লাগে না'র অ্যাকুস্টিক ভার্সন প্রকাশ করা যেতে পারে।

আপনার জনপ্রিয় আরও কিছু গান নতুন সংগীতায়োজনে প্রকাশ করবেন কি?

এ নিয়ে এখনও কিছু ভাবিনি। শ্রোতা যদি চায়, তাহলে ভবিষ্যতে হয়তো আরও কিছু গান নতুন সংগীতায়োজনে প্রকাশ করতে পারি।

'আবেগী এই মন' গানের পর নতুন কোনো আয়োজন করেছেন?

কাজ তো থেমে নেই, চলছে। কিন্তু যতক্ষণ না মনে হবে কাজটি মনের মতো হয়েছে, ততক্ষণ পর্যন্ত গান রিলিজের বিষয়টি মাথায় আনতে চাই না। এটা সত্যি যে, কাজের সংখ্যা বাড়িয়ে শ্রোতাদের খুশি করা যায় না। সংখ্যায় কম হলেও ভালো কাজের মধ্য দিয়েই গানপাগল মানুষের মন জয় করা যায়। এ জন্য প্রতিটি কাজেই আমি যথেষ্ট সময় আর যত্ন নিয়ে করতে চাই।

নতুনদের নিয়ে ধারাবাহিক আয়োজনের কথা বলেছিলেন, কাজ কি চলছে?

করোনার জন্য অনেক দিন ঘরবন্দি ছিলাম। তাই তরুণ শিল্পীদের নিয়ে কাজ করা হয়ে ওঠেনি। সবে মন্দা সময়টা কাটিয়ে উঠতে শুরু করেছি। তাই নতুনদের নিয়ে 'হৃদয় মিক্স'-এর ধারাবাহিক আয়োজন শুরু করতে খুব একটা সময় লাগবে বলে মনে হয় না।

গানের পাশাপাশি নির্মাতা হিসেবে আপনাকে কাজ করতে দেখা গেছে। এ বিষয়ে নতুন কিছু ভাবছেন?

অনেক দিন ঘর থেকে বেরোতে পারিনি বলেই নির্মাণ নিয়ে কিছু ভাবিনি। এবার গানের পাশাপাশি ভিডিও নির্মাণও শুরু করব। নতুন একটি গানের কাজ চলেছে। সেটি শেষ হলে ভিডিও পরিচালনার কাজ শুরু করব। এরপর মিউজিক ভিডিওর পাশাপাশি 'ট্রাপড'-এর মতো কিংবা আরও ভিন্ন ধরনের কোনো সিনেমা বানানো যায় কিনা, তা নিয়ে ভাবব।

এর মধ্যে কোনো সিনেমায় প্লেব্যাক কিংবা সংগীত পরিচালনা করেছেন?

মীর সাব্বির পরিচালিত 'রাত জাগা ফুল' ছবিতে প্লেব্যাকের পাশাপাশি সংগীত পরিচালনা করেছি। এরপর তো একের পর এক লকডাউন চলতে থাকল। যে জন্য আর কিছু করা হয়ে ওঠেনি। তবে কাজের প্রস্তাব পাচ্ছি। এখন দেখি, কী করা যায়।

রিয়েলিটি শো 'অনন্য প্রতিভা'য় বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এর কতটুকু কাজ শেষ হয়েছে?

সেরা দশ প্রতিযোগী নির্বাচনের কাজ শেষ হয়েছে। এখন গ্র্যান্ড ফিনালের অপেক্ষা। যেটুকু কাজ বাকি, সেটা হয়তো শিগগিরই স্বাস্থ্যবিধি মেনে শেষ করা সম্ভব। এখন শুধু গ্র্যান্ড ফিনালের দিন-তারিখ চূড়ান্ত হওয়ার অপেক্ষা।

এই রিয়েলিটি শোর মাধ্যমে প্রতিযোগীদের কোন প্রতিভা তুলে আনা হচ্ছে?

'অনন্য প্রতিভা'র প্ল্যাটফর্মে প্রতিযোগীরা নাচ, গান, আবৃত্তি, মার্শাল আর্ট, চিত্রশিল্পসহ নানা বিষয়ে তাদের প্রতিভা তুলে ধরার সুযোগ পাচ্ছে। নির্দিষ্ট একটি বিষয় নিয়ে অনেক রিয়েলিটি শো হচ্ছে। কিন্তু একসঙ্গে এত বিষয় তুলে ধরার সুযোগ আর কোথাও দেখিনি। এই বিষয়টা আমাকে দারুণ অবাক করেছে।