দীর্ঘ ১৫ বছরের দাম্পত্য জীবন শেষ করেছেন আমির খান। গত জুলাই মাসে কিরণ রাওয়ের সঙ্গে যৌথ বিবৃতি দিয়ে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন দুজন। তবে বন্ধুত্বের সম্পর্কটা টিকিয়ে রেখেছেন তারা। সোশ্যাল মিডিয়ায় গত কয়েক দিন ধরেই আমিরের তিন নম্বর বিয়ের জল্পনা তুঙ্গে।

আগামী এপ্রিলে ‘লাল সিং চড্ডা’র মুক্তির পরই নাকি বিয়ের ঘোষণা দেবেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট। পাত্রীও খুব চেনা। দঙ্গলকন্যা ফাতিমা সানা শেখের সঙ্গেই নাকি তৃতীয় বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে চলেছেন আমির। 

সত্যি কি বিয়ের পিঁড়িতে আমির-ফতিমা? এ নিয়ে মুখ বন্ধ রেখেছেন ‘থ্রি ইডিয়টস’ তারকা। কিন্তু আমির-ফাতিমার বিয়ের এই গুঞ্জন সম্পূর্ণ ভুয়া বলে জানাচ্ছে অভিনেতার ঘনিষ্ঠ মহল। আমির-কারিনা অভিনীত ‘লাল সিং চড্ডা’র নতুন পোস্টার ও মুক্তির তারিখ সামনে আসার পর থেকেই আমির খানের বিয়ের খবর ভুয়া বলে প্রকাশ পেয়েছে। গোটা বিষয়ে বিরক্ত আমির, তবে এ নিয়ে কোনো রকম মন্তব্য করতে চান না তিনি। 

আমিরের ডিভোর্সের ঘোষণার পরপরই নেটপাড়ায় রব উঠেছিল আমির-ফাতিমার সম্পর্ক নিয়ে। নেটিজেনদের একটা বড় অংশের দাবি, ফাতিমার প্রেমে পড়েই নাকি কিরণের সঙ্গে নিজের সংসার ভেঙেছেন আমির খান। তবে অতীতে ফাতিমা স্পষ্ট করেছেন, আমির খান তাঁর মেন্টর মাত্র। তাঁদের মধ্যে কোনো রকমের প্রেমের সম্পর্ক নেই বা থাকতে পারে না। 

২০০৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর বিবাহবন্ধনে বাঁধা পড়েছিলেন আমির-কিরণ। বিয়ের ছয় বছর পর জন্ম হয় এই জুটির একমাত্র সন্তান আজাদ রাও খানের। কিরণের আগে রিনা দত্তের সঙ্গে সংসার করেছেন আমির। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে তাঁর দুই সন্তান- ইরা খান ও জুনেইদ খান।