মিথিলার মাথায় হিজাব। চোখে চশমা। ঠোঁটে হালকা লিপস্টিক। তার পেছনে অনেক দর্শনার্থী। সম্প্রতি এমন একটি ছবি পোস্ট করেছেন ইস্টগ্রামে। ক্যাপশনে মিথিলা লিখেছেন  ‘হায়া সোফিয়া ও নীল মসজিদ দেখে মুগ্ধ।’

ক্যাপশন দেখেই বুঝা যাচ্ছে মিথিলা  ৪০০ বছরের আগে নির্মিত তুরস্কের ঐতিহাসিক স্থাপনা  নীল মসজিদে দেখতে গিয়েছেন। যে মসজিদটি সুলতান আহমেদ (দ্বিতীয় সুলতান) যুদ্ধে পরাজিত হওয়ার পর এটি নির্মাণ করেছিলেন। শুধু নীল মসজিদের ছবিই পোস্ট করেছেন তা কিন্তু নয়। পুরো ইস্তাম্বুল শহরটিই ঘুরে ঘুরে দেখছেন মিথিলা। সে ঘুরাঘুরির ছবিও পোস্ট করেছেন। 

ঘুরতে পছন্দ মিথিলা। কাজের জন্য প্রায়ই যেতে হয় দেশের বাইরে। তখন কাজের ফাকে শহর ঘুরে দেখাটা মিস করেন না। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।  পশ্চিম আফ্রিকার সিয়েরা লিওনিতে দেশটির সরকারের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে শিশু বিকাশ নিয়ে কাজ করছে 'বাংলাদেশ রুরাল অ্যাডভান্স কমিটি' নামে একটি সংস্থা। এই সংস্থার হয়ে দীর্ঘদিন সেখানে কাজ করছেন অভিনেত্রী মিথিলা। সিয়ের লিওনি থেকে ফেরার সময়ই ইস্তানবুলে নিজের জন্য কিছু সময় বের করেন মিথিলা। এই  একাই  ঘুরে দেখেন ইস্তানবুল শহর, শহরের জনপ্রিয় মসজিদ,গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। গেলেন মার্কেটেও।  


এদিকে মিথিলা জানান, ঢাকায় ফিরছেন তিনি। ঢাকায় শুটিং আছে একটি ছবির। আগামী ডিসেম্বরে আবার কলকাতায় শ্বশুরবাড়ি যাবেন।

বাংলাদেশে সরকারি অনুদান নির্মিতব্য ‘জলে জ্বলে তারা’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন মিথিলা। অরুণ চৌধুরী পরিচালিত এ চলচ্চিত্রে মিথিলার বিপরীতে অভিনয় করেছেন নাঈম। কলকাতাতেও 'মায়া' নামে একটি ছবির শুটিং শেষ করেছেন।  এছাড়াও টালিউড সুপারস্টার জিৎ প্রযোজিত শৌভিক কুণ্ডুর ‘আয় খুকু আয়’ ছবিতেও অভিনয় করছেন তিনি।