নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, মুজিব বাহিনীর অধিনায়ক ও যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ শেখ ফজলুল হক মনির ৮৩তম জন্মদিন শনিবার পালিত হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে এ দিন সকালে যুবলীগের উদ্যোগে রাজধানীর বনানী কবরস্থানে শহীদ শেখ ফজলুল হক মনিসহ ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন, মিলাদ, দোয়া মাহফিল ও খাদ্য বিতরণ করা হয়। যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্‌ পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের নেতৃত্বে শ্রদ্ধা নিবেদন কর্মসূচিতে সংগঠনের কেন্দ্রীয়, মহানগর, থানা ও ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস প্রয়াত এই নেতার কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে সাংবাদিকদের ফজলে নুর তাপস বলেন, শহীদ শেখ ফজলুল হক মনি কখনও সত্য প্রকাশে দ্বিধা করেননি। লেখনীর মাধ্যমে জাতি গঠনে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি মুজিববাদের কার্যক্রম তুলে ধরেছেন তিনি। জাতি গঠনে যুবসমাজকে কীভাবে নিয়োজিত করা যায়, লেখনীর মাধ্যমে সে বিষয়ে তিনি যেসব নির্দেশনা রেখে গেছেন- সেগুলো যুবসমাজের জন্য পাথেয় হয়ে থাকবে।

এ সময় মেয়রের সঙ্গে আরও উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহম্মদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী মোর্শেদ হোসেন প্রমুখ। 

শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারায় যুবলীগকে পাশে থাকতে হবে: মতিয়া চৌধুরী

দিনটি উপলক্ষে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে যুবলীগ 'শেখ ফজলুল হক মনি; সৃষ্টিশীল তারুণ্যের প্রতীক' শীর্ষক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী বলেন, ১৯৮১ সালের ১৭ মে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা তার বাবার স্বপ্ন বাস্তবায়নের এদেশে এসেছিলেন। সেদিন এ দেশের মানুষ বলেছিল, 'ঝড়-বৃষ্টি আঁধার রাতে আমরা আছি তোমার সাথে'। শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে যুবলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে একইভাবে বলতে হবে 'ঝড়-বৃষ্টি আঁধার রাতে যুবলীগ আছে শেখ হাসিনার সাথে'।

সভাপতির বক্তব্যে শহীদ শেখ ফজলুল হক মনির বড় ছেলে ও যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্‌ পরশ বলেন, তার বাবার কর্ম আজও বেঁচে আছে লাখো রাজনৈতিক অনুসারীদের মাঝে। বাবার প্রতি তাদের যেই ভালবাসা আর সম্মানবোধ, সেটা তাকেও গভীরভাবে স্পর্শ করে। তিনি বলেন, বিরোধীদল হিসেবেও বিএনপি বছরের পর বছর ধরে আন্দোলন-সংগ্রামে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে। তাই তাদের এখন একমাত্র রাজনৈতিক সম্বল একজন বয়স্ক ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করা। এই প্রতিক্রিয়াশীল অপশক্তিকে মোকাবিলা এবং জনগণের ওপর তাদের জুলুম-অত্যাচারের জবাব দিতে শেখ মনি'র যুবলীগ রাজপথে সর্বদা প্রস্তুত। যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান চৌধুরী।