মিস ইউনিভার্সের মঞ্চে বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের মধ্যে দাঁড়িয়ে ভারতীয় কন্যা। জয়ের হাসি কে হাসবেন? শেষ মুহূর্তে সবার হৃদস্পন্দন বাড়ছিল। ঠিক এসময়ই ঘোষণা। বিচারকদের মন জয় করে মুকুট পরলেন পাঞ্জাবের চণ্ডীগড়ের হরনাজ সান্ধু। ২১ বছর পর ভারতের তৃতীয় কন্যার খেতাব জয় নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। তার গাউন নিয়েও আলোচনার শেষ নেই। জানেন, হরনাজ সান্ধুর গাউনটি কে তৈরি করেছেন?

ইজরায়েলে বসেছিল মিস ইউনিভার্সের আসর। একটি গাউন পরে প্রতিযোগিতার মঞ্চে ধরা দিয়েছিলেন হরনাজ। পরনে ছিল বেজ রংয়ের শিমারি গাউন। তার ওপর রূপালির কারুকাজ ওই গাউনকে আরও বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে। ছোট হাতা এবং ভি কাটের ওই গাউনে আরও বেশি মোহময়ী হয়ে উঠেছিলেন হরনাজ। খবর সংবাদ প্রতিদিনের


মিস ইউনিভার্সের পোশাক তৈরি কে করেছেন, তা জানতে নিশ্চয়ই ইচ্ছা করছে। ওই গাউনটি তৈরি করেছেন সইশা শিন্ডে। স্বপ্নীল শিন্ডে নামেই জীবন শুরু করেছিলেন। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই তিনি বুঝতে পারেন তার শারীরিক এবং মানসিক গঠনের মধ্যে ফারাক অনেকটাই। তাই নিজেকে পুরুষ থেকে নারী রূপে মেলে ধরতে চেয়েছিলেন। নানা কঠিন পথ পেরিয়ে চলতি বছর জানুয়ারিতে পুরোপুরি নারী রূপে প্রতিষ্ঠা পান। স্বপ্নীল থেকে হয়ে ওঠেন সইশা।


ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে প্রতিষ্ঠাও পেয়েছেন তিনি। ‘ফ্যাশন’ ছবিতেও কস্টিউম ডিজাইন করেছিলেন সইশা। এছাড়াও কারিনা কাপুর, শ্রদ্ধা কাপুর, অনুষ্কা শর্মার মতো একাধিক বলি তারকার পোশাক তৈরি করেছেন সইশা। এই ধারাবাহিকতায়ই হরনাজের গাউনটিও তৈরি করেছেন তিনি।

ওই গাউনের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এক পাথরের ঝোলা দুলে সেজেছিলেন চণ্ডীগড়ের সুন্দরী। হালকা মেকআপ, ন্যুড লিপস্টিকে পরছিলেন হরনাজ। চোখের মেকআপেই ছিল বিশেষত্ব।