বর্ষীয়ান চলচ্চিত্র পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু চলচ্চিত্রের বিভিন্ন শিল্পীদের নিয়ে একের পর এক  বিতর্কিত ও কটূক্তিমূলক মন্তব্য করেই যাচ্ছেন। তার মতো জৈষ্ঠ  নির্মাতার অযাচিত মন্তব্য ঘিরে প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে ঢাকাই সিনেমা অঙ্গন। 

সম্প্রতি দেশের শীর্ষ নায়ক শাকিব খানকে নিয়ে অকথ্য ভাষায় মন্তব্য করেন তিনি। সম্প্রতি শাকিব খান তার ‘গলুই’ সিনেমার ‘ডাবিং’ করেন যুক্তরাষ্ট্রে। পরিচালক-প্রযোজক ও নায়কের আলোচনার ভিত্তিতে সেখানে ডাবিং হয়। শাকিবের যুক্তরাষ্ট্রে ডাবিংয়ের খবরকে কেন্দ্র করে ‘চড়ানো’দরকার বলে মন্তব্য করেন দেলোয়ার জাহান ঝন্টু।

দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর এসব মন্তব্যকে ‘অহেতুক’ ও মোটেও সমর্থন করেন না চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান। শুক্রবার বিকেলে  ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ সিনেমার এই পরিচালক বললেন,  ঝন্টু ভাইয়ের বয়স প্রায় ৭৩ বছর। যখন কিছু বলতে যান বাছবিচার করে না। তবে ওনার মাথায় একটু সমস্যা আছে। 

সম্প্রতি সুপারস্টার শাকিব খান তার ‘গলুই’ সিনেমার ‘ডাবিং’ করেন যুক্তরাষ্ট্রে। পরিচালক-প্রযোজক ও নায়কের আলোচনার ভিত্তিতে সেখানে ডাবিং হয়। শাকিবের যুক্তরাষ্ট্রে ডাবিংয়ের খবরকে কেন্দ্র করে ‘অপ্রাসঙ্গিক’ মন্তব্য করেন দেলোয়ার জাহান ঝন্টু।

তবে সিনেমার প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু জানিয়েছেন, দেলোয়ার জাহান ঝন্টু কেন নাক গলালেন তার জানা নেই। এও বলেন, ‘গলুই’ সিনেমা নিয়ে তার (ঝন্টু) মন্তব্য একান্তই ব্যক্তিগত ব্যাপার। শাকিব টানা ৩৫ দিন শিডিউল দিয়ে পূর্ণ সহযোগিতা করেছেন। চাওয়ার চেয়েও বেশী সহযোগিতা করেন। এজন্য তার কাছে কৃতজ্ঞ।

গেলো বছর দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর পরিচালনায় ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমা থেকে সাইমন ও বাপ্পী একে একে সরে যান। তখন তাদের নিয়েও ‘অযাচিত’ মন্তব্য করেন ঝন্টু।

মার্চে ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমাটি মুক্তির আগে দীঘিকে ‘দুই পয়সার মেয়ে’ বলে কটূক্তি করে সমালোচনার শিকার হন এই গুণী নির্মাতা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট একাধিক সিনিয়র ব্যক্তিরা বলছেন, এসব মন্তব্য করে ঝন্টু আলোচনায় থাকতে চান। তার এমন মন্তব্যে সাধারণ মানুষের কাছে শিল্পীদের ইমেজ ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। যাদের নিয়ে কটূক্তি করা হয় তারা প্রতিবাদ করেন না বলেই ঝন্টু লাগামহীন মন্তব্য করে যাচ্ছেন।

শাকিবকে কটূক্তি প্রসঙ্গ টেনে ঝন্টু সম্পর্কে সোহানুর রহমান সোহান বলেন, উনি (দেলোয়ার জাহান ঝন্টু) অতিরিক্ত করছেন। এগুলো বলা তার মোটেও ঠিক না। আমেরিকায় ডাবিং করা নিয়ে যেখানে প্রযোজক-পরিচালকের কোনো অসুবিধা নেই তাহলে তার সমস্যা কেন? উনি কার থেকে কী শুনে এমন খারাপ মন্তব্য করেছেন আমার জানা নেই। তবে তার বুঝেশুনে কথা উচিত ছিল।

একজন বরেণ্য নির্মাতা হিসেবে শাকিব খান কিংবা অন্যান্য শিল্পীদের নিয়ে কেন বিতর্কিত মন্তব্য করেন, জানতে চেয়ে সম্প্রতি তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। যেসব শিল্পীদের নিয়ে তিনি বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন তাদের নাম উল্লেখ করে ঝন্টু এই প্রতিবেদকের সঙ্গেও অশোভন আচরণ করেন। হুমকিও দেন। পরে আর কোনো কথা বলতে চাননি। তারসঙ্গে কথপোকথনের অডিও সংরক্ষিত রয়েছে।