যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে ঢাকায় ফিরেই সোজা গাজীপুরের হোতাপাড়ায় চলে গেছেন চিত্রনায়ক বাপ্পি চৌধুরী। সেখানে হোতাপাড়ার খতিব খামার বাড়িতে শুরু করেছেন শাহীন সুমন পরিচালিত নতুন সিনেমা 'কুস্তিগীর' এর শুটিং। 

সোমবার খতিব খামার বাড়িতে গিয়ে দেখা গেলো কুড়েঘরে চলছে বাপ্পির দৃশ্যায়ণ। ঘরটির বারান্দায় পাটি বিছিয়ে তার উপর বসে বাবা ও বোনকে নিয়ে  প্লেট ভর্তি করে ভাত খাচ্ছেন তিনি। খাওয়া ও তার কাজকর্ম নিয়ে বোন ও মা বাপ্পিকে কথা শুনিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু বাপ্পির সেদিকে কোনো মনোযোগ নেই। আপন মনে খাবার খেয়ে যাচ্ছেন তো যাচ্ছেনই।  

কয়েকবার দৃশ্যটির শুটিং নেওয়ার পর শুটিং বিরতি দিলে বাপ্পি জানালেন, শুটিংয়ের দৃশ্যর জন্য এভাবেই তাকে প্লেট ভর্তি করে ভাত খেতে হচ্ছে প্রতিদিন। দিনে দশ প্লেটের মতো ভাত খেতে হচ্ছে তাকে।

বাপ্পি বলেন, 'ছবিটিতে আমি একজন কুস্তিগীর। তাই খাওয়া-দাওয়া একটু বেশিই করতে হচ্ছে। এতে করে লাভও হচ্ছে। কুস্তিগীর হতে যে পরিমাণ মোটাসোটা হতে হয় শুটিংয়ের ভাত খেয়েই তা পূরণ হয়ে যাচ্ছে।'

যদিও পরিচালকের শর্ত মোতাবেক শুটিং শুরুর আগেই বাপ্পি খাওয়া-দাওয়া করে আগেই দশ কেজির মতো ওজন বাড়িয়েছেন বলে জানালেন। 

ছবিটির মাধ্যমে দীর্ঘ ৮ বছর পর শাহীন সুমনের পরিচালনায় ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছেন বাপ্পি।  ‘ভালোবাসার রঙ’ নামে যে ছবির মাধ্যমে বাপ্পির অভিষেক হয়েছিলো। সে সিনেমার পরিচালক ছিলেন শাহীন সুমন। এরপর একে একে তিনটি ছবি মুক্তি পেয়েছে এ পরিচালক-নায়ক জুটির। ছবিগুলো ব্যবসা সফলও হয়েছে।

মাঝখানের দীর্ঘ এ সময় শাহীন সুমনের পরিচালনায কাজ করা হয়নি কেনো? প্রশ্ন রাখলে বাপ্পি বলেন, 'আসলে উভয়ের শিডিউলজণিত সমস্যা থাকার কারণেই কোনো ছবি করা হয়নি। শাহীন ভাই তো ভার্সেটাইল নির্মাতা। তিনি গল্পের প্রয়োজনে যাকে নেওয়া প্রয়োজন তাকে নিয়েই কাজ করেছেন। অনেক দিন পর তার সঙ্গে গল্প এবং শুটিংয়ের শিডিউল মিলে যাওয়ায় আবার কাজ শুরু হলো।'

বাপ্পির সঙ্গে সুর মিলিয়ে নির্মাতা শাহীন সুমনও আট বছর একসঙ্গে কাজ না হওয়ার কারণ হিসেবে একই কথা বললেন। 

'কুস্তিগীর' ছবিটির কাহিনী ও চিত্রনাট্য করেছন সঞ্জয় কান্ত। এতে বাপ্পির নায়িকা হিসেবে আছেন জাহারা মিতু। আরও আছেন মিশা সওদাগর, সাবেরি আলম ও সাঞ্জু জন।

গত ২৪ ডিসেম্বর থেকে শুটিং শুরু হয় ছবিটির। খাতিব খামার বাড়ি ওর এর আশপাশে টানা ১৪ দিন শুটিং করে এরপর কিশোরগঞ্জ ও চাঁদপুরে ছবিটির শুটিং হবে বলে জানালেন পরিচালক। ছবিটি নতুন বছরের প্রথম দিকেই মুক্তি পাবে বলেও জানালেন তিনি।