বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর বিধি না মানার অভিযোগ উঠেছে মিশা-জায়েদ কমিটির দিকে।  তফসিলের ১ নম্বর বিধিতে বলা আছে ৮ জানুয়ারি সকাল ১০টার মধ্যে খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ হবে। কিন্তু সরেজমিনে শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে গতকাল দেখা গেলো কোনো ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। 

এ সময় অনেক  সদস্যকে ভোটার তালিকায় নিজের নাম খুঁজতে গিয়ে কোনো তালিকা না পেয়ে হতাশ হয়ে ফিরে যেতে দেখা গেছে।  

বিষয়টি নিয়ে  শিল্পী সমিতির কার্যকরী কমিটির কয়েকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, খসড়া ভোটার তালিকা প্রস্তুত আছে। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করতে দেরি হয়ে গেল।

তবে অনেক শিল্পীরাই এর বিরোধিতা করে বলেন, ‘ভোটার তালিকা কাটছাট করা নিয়ে বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান নানা নাটক করে যাচ্ছেন গেল কয়েক বছর ধরে। এরইমধ্যে ১৮৪ জন হাইকোর্ট থেকে সদস্যপদের আদেশ নিয়ে এসেছেন। এই ১৮৪ জনকে অকারণেই সমিতির সদস্যপদ নিয়ে লড়াই করতে হয়েছে শুধুমাত্র বর্তমান কমিটির প্রতিহিংসার রাজনীতির জন্য। তারা নিজেদের সমর্থিত লোকজন ছাড়া আর কাউকেই শিল্পী সমিতির সদস্য রাখতে চায় না। এসব টালবাহানার কারণেই এখনও ভোটার খসড়া তালিকা প্রকাশ করছে না।’

এদিকে আগামী ২৮ জানুয়ারি ২০২২-২০২৪ মেয়াদে শিল্পী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে বর্তমান কমিটির সভাপতি মিশা সওদাগর ও সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান প্যানেলে নির্বাচন করবেন। অন্য প্যানেলে একুশে পদকজয়ী অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন ও অভিনেত্রী নিপুণ নেতৃত্ব দিচ্ছেন।