শনিবার শুরু হয়েছে ‘২০তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব-২০২২’।  বাংলাদেশসহ ৭০টি দেশের ২২৫টি চলচ্চিত্র দেখানো হবে এই উৎসবে। চলবে ২৩ জানুয়ারি পর্যন্ত। 

এবারের প্রদর্শনীতে পূর্ণদৈর্ঘ্য ১২৯টি এবং স্বল্পদৈর্ঘ্য ও স্বাধীন চলচ্চিত্রের সংখ্যা ৯৬টি। এর মধ্যে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র রয়েছে ৪০টি, যার মধ্যে ২২টি স্বল্পদৈর্ঘ্য ও ১৮টি পূর্ণদৈর্ঘ্য। রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ এই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব আয়োজন করেছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন গতকাল বিকেলে রাজধানীর শাহবাগে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

এই উৎসব সম্পর্কে জানেন না ঢাকাই ছবির নায়ক বাপ্পী চৌধুরী। এই না জানা নিয়ে বিস্মিত তিনি। ফেসবুকে বিস্ময় প্রকাশ করে লিখেছেন, আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব; চলচ্চিত্রের মানুষ হয়ে আমরাই জানিনা! মানুষ কোথা থেকে জানবে? অথচ এমন উৎসবগুলো হতে পারতো আমাদের মাথার তাজ। চলচ্চিত্রের মানুষগুলো হতে পারতো এই তাজের এক একটি পালক।'

বাপ্পীর ওই পোস্টে এক উদীয়মান নির্মাতা মন্তব্য করেছেন, 'পুরাই সিন্ডিকেট।'  আরেকজন মন্তব্য করেছেন 'একটু আগেই এই বিষয়গুলো নিয়ে আলাপ করছিলাম যে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অনেকেই জানে না ফেস্টিভ্যাল এর বিষয়ে অন্যলোকজন কিভাবে জানবে।'

১৯৯২ সাল থেকে রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ এই উৎসব আয়োজন করে আসছে। এশিয়ান প্রতিযোগিতা বিভাগ, রেট্রোস্পেকটিভ বিভাগ, ওয়াইড অ্যাঙ্গেল, ট্রিবিউট, বাংলাদেশ প্যানারোমা, সিনেমা অব দ্য ওয়ার্ল্ড, শিশুতোষ চলচ্চিত্র, উইমেন্স ফিল্মমেকার, স্বল্পদৈর্ঘ্য ও স্বাধীন চলচ্চিত্র এবং আধ্যাত্মিক চলচ্চিত্র—এই ১০টি বিভাগে চলচ্চিত্রগুলো প্রদর্শিত হবে।