এফডিসি মানেই যেনো লাইট, ক্যামেরা আর অ্যকশনে-শব্দে মুখোর থাকা। স্বপ্নের তারকাদের উজ্জল উপস্থিতি আর ফ্লোরে ফ্লোরে  নাচ-গান ও অভিনয়ের মহড়া। 

সেই এফডিসিতে এবার নির্মিত হলো তিন কোটি টাকা ব্যয়ে নান্দনিক মসজিদ। যে মসজিদটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে আগামী কাল (২০ জানুয়ারি)। 

ঝর্ণা স্পটের যেখানে আগের মসজিটটি ছিলো সেখানেই নতুন এই মসজিদটি পুনঃনির্মিত হয়েছে। দু'তলাবিশিষ্ট এই মসজিদে একসঙ্গে প্রায় পাঁচ হাজার মুসল্লী নামাজ আদায় করতে পারবেন। 

মসজিদের ওপরের অংশের দু’পাশে নির্মিত হয়েছে সুউচ্চ মিনার। আর মাঝখানের গম্বুজের কারুকার্য এই মসজিদটির সৌন্দর্য আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

অভিনেতা সনি রহমানের উদ্যোগে থার্মেক্স গ্রুপের এমডি নরসিংদীর আবদুল কাদির মোল্লার অর্থায়নে পুনঃনির্মাণের কাজটি সম্পন্ন হয়েছে। ২০ জানুয়ারি  মসজিদটি আবদুল কাদির মোল্লা নিজে উপস্থিত থেকে উদ্বোধন করবেন বলে জানান সনি রহমান।  এছাড়াও এফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুজহাত ইয়াসমিন, প্রযোজক, পরিচালক সমিতির নেতারা এবং শিল্পীদের প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন বলে জানান তিনি। 

মসজিদ নির্মাণে ব্যয় প্রসঙ্গে সনি রহমান বলেন, 'মসজিদ নির্মাণের শুরুর অনেক গল্প আছে। কিন্তু সব গল্প পেছনে ফেলে মসজিদটি এখন এফডিসিতে মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে। এটা যার জন্য সম্ভভ হয়েছে সেই থার্মেক্স গ্রুপের এমডি নরসিংদীর আবদুল কাদির মোল্লার আঙ্কেলের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। মসজিদ নির্মাণের ব্যায়  এখনো পূর্ণাঙ্গ হিসেব হয়নি, তবে পৌনে তিন কোটি টাকার মতো খরচ হয়েছে।'

২০১৮ সালের ১২ ডিসেম্বরে এফডিসি মসজিদের পুনঃনির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তুও স্থাপন করা হয়। মসজিদ নির্মাণে প্রাথমিক ব্যয় ধরা হয়েছিলো ২ কোটি ৯ লাখ টাকা। পরে সৌন্দর্য বর্ধণের নানা নকশা এবং লাশ গোসলখানা নির্মাণের ফলে ব্যয় বেড়ে যায়। 

এফডিসির এই মসজিদ নির্মাণ করা ছাড়াও কাদির মোল্লা এর আগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশের সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে শতাধিক মসজিদ নির্মাণ করেছেন।

ছবি: অনিন্দ্য মামুন