২০০০ সালে মিস ইউনিভার্সের শিরোপা জেতেন লারা দত্ত। ২০০৩ সালে বলিউডে তার অভিষেক হয় 'আন্দাজ’ সিনেমার মধ্য দিয়ে। এই ছবিতে তার সঙ্গে ছিলেন অক্ষয় কুমার ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

এরপর একে একে ‘বিল্লু’, ‘ভাগম ভাগ’, ‘নো এন্ট্রি’, ‘হাউসফুল’-এর মতো জনপ্রিয় ছবিতে অভিনয় করেন লারা। এখন চুটিয়ে অভিনয় করছেন ওটিটি সিরিজে। অথচ মাঝের বেশ কয়েকটা বছর বড় পর্দা থেকে নিজেকে পুরোপুরি সরিযে নিয়েছিলেন তিনি।

আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৫ সাল থেকে বড় পর্দা থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিতে শুরু করেন লারা। দু’বছরের বেশি সময় পর্দা থেকে পুরোপুরি দূরে থেকে আবার একটু একটু করে অভিনয়ে ফিরছেন তিনি। তবে ওটিটি সিরিজেই দেখা যাচ্ছে তাকে। বহু দিন পরে ২০২১ সালে 'বেলবটম ’ছবিতে দেখা গিয়েছে তাকে। এই ছবিতে অক্ষয়কুমারের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন তিনি।

লারা জানান, মেয়ে সায়রার জন্মের পরে তাকে বেশি সময় দিতেই বলিউড থেকে সরে আসেন তিনি। অবশ্য  বলিউডের উপরেও বিরক্ত হয়ে উঠেছিলেন লারা। তিনি বলেন 'নায়কের প্রেমিকা বা স্ত্রীর চরিত্র করতে করতে ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলাম। আসলে তখনকার বলিউডে নায়িকার চরিত্র থাকত শুধুমাত্র ছবির গ্ল্যামার বাড়ানোর উদ্দেশ্যে। তাদের ভূমিকা হত নায়কের সুন্দরী প্রেমিকা বা স্ত্রী হওয়া। তা করতে করতে বিরক্ত হয়ে গিয়েছিলাম। তাই ছবি করাই কমিয়ে দিই'।

লারা আরও বলেন, 'ভাগ্যিস এই সময়ে কয়েকটা কমেডি ছবিতে অভিনয় করেছিলাম। সাফল্যও এসেছিল। বলিউডে ওটুকুই আমার ভাল লাগার স্মৃতি'।

ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ‘হানড্রেড’-এ পুলিশ অফিসার, ‘হিকাপস অ্যান্ড হুকআপস’-এ একাকী মা, ‘কউন বনেগি শিখরবতী’তে এক পাগলা রাজার কন্যা- চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গেছে  লারাকে।