''কাজের স্বীকৃতি হিসেবে আগে অন্যান্য পুরস্কার পেলেও প্রথমবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলাম। এ পুরস্কার পাবো এমন প্রত্যাশা আমার ছিলো না। 'গোর' ছবিতে অভিনয় করতে গিয়েও মনে হয়নি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাবো। তবে সত্য কথা হচ্ছে, পুরস্কারটি আমি পাচ্ছি। অভিনেত্রী হিসেবে এটা বিরাট অর্জন আমার জন্য''- বলছিলেন ‘গোর’ ছবির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের তালিকায় শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হওয়া রোজালিন দীপান্বিতা মার্টিন। 

সম্প্রতি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ২০২০ সালের সেরাদের নাম ঘোষণা হয়েছে। দীপান্বিতা অভিনীত গোর ছবিটি ১১টি পুরস্কার জিতে নিয়েছে। ছবিটি পরিচালনা করেছেন নির্মাতা ও অভিনেতা গাজী রাকায়েত। তিনিও পেয়েছেন সেরা পরিচালকের পুরস্কার।  

দীর্ঘদিন ধরে অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত আছেন রোজালিন দীপান্বিতা মার্টিন। আলোচনায় আসেন আবু শাহেদ ইমন পরিচালিত নাটক ‘গোল্ডেন এ প্লাস’-এর মাধ্যমে। এবার ‘গোর’ সিনেমায় অনবদ্য অভিনয়ে জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন। 

এই পুরস্কার ও ক্যাারিয়ারের নানা প্রসঙ্গ নিয়ে শনিবার সমকালের সঙ্গে কথা বলেন দীপান্বিতা। জানালেন, পুরস্কার পাওয়ার খবরের চারদিন পরও বিষয়টি স্বপ্নের মতেই লাগছে তার কাছে।

তিনি বলেন, 'বিশ্বাস করুন, খবরটি শোনার পর প্রথমে বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়েছে। পুরস্কারটি আসলে আমিই পেয়েছি কিনা- সেটা বিশ্বাস হচ্ছিল না। খবরটি শোনার পর কিছুক্ষণ চুপচাপ বসে ছিলাম। এখন বুঝতে পারছি কত বড় একটি সম্মান আমি পেয়েছি।'

ছোটবেলা থেকে মঞ্চে কাজ করে আসা দীপান্বিতা আসলে সিনেমাতেই অভিনয় করতে চান বলে জানালেন। বললেন, 'মঞ্চ আমার শেকড়। সেখান থেকেই আমি আজকের দীপান্বিতা। তবে এখন শুধু সিনেমাই করতে চাই। পছন্দের গল্প-চরিত্র যদি বছরে ৪-৫টা আসে, সেগুলো নিয়ে কাজ করতে চাই।'

মঞ্চে কাজ করেছেন, চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন, এই ইন্ডাস্ট্রি কি আপনাকে যথাযথ মূল্যায়ন করতে পেরেছে বলে মনে করেন? জবাবে দীপান্বিতা বলেন, 'ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, একজন ক্যারেক্টার আর্টিস্ট হিসেবে আমার যে যে চরিত্রে কাজ করবার ক্ষমতা রয়েছে, যোগ্যতা রয়েছে, সে ধরনের চরিত্র অনেক সময়ই আমাকে দেওয়া হয়না। কারণ হিসেবে আমাকে বলা হয়, আপনাকে নিয়ে করলে চ্যানেল এটা চালাবে না। এটা আমার জন্য বড় রকমের একটা কষ্ট হয়ে ধরা দেয়।'