যথাযোগ্য মর্যাদায় মরিশাসস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করেছে। মরিশাসে স্থানীয়ভাবে কোভিড-১৯ এর প্রটোকল অনুসরণপূর্বক হাইকমিশনে সংক্ষিপ্ত আকারে একটি ইন-হাউজ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এই বিশেষ দিবস উপলক্ষে মিশনের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার মৌসুমী ওয়াইজ দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা ও প্রবাসী বাংলাদেশীদের নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।

এসময় স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে প্রদত্ত মহামান্য রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণীসমূহ পাঠ করেন যথাক্রমে অত্র মিশনের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার মৌসুমী ওয়াইজ ও কাউন্সেলর রাজীব ত্রিপুরা।

ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার মৌসুমী ওয়াইজ তার বক্তব্যে প্রথমেই গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন- সর্বকালের সর্বশেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা ও স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তার পরিবারের সকল সদস্যকে। একই সাথে জাতীয় চার নেতা, স্বাধীনতা যুদ্ধের ৩০ লাখ শহিদসহ সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সম্ভ্রম হারানো দুই লাখ মা-বোনদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

তিনি আরো উল্লেখ করেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব, সংগ্রাম এবং সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের কারনেই আমরা স্বাধীন বাংলার গর্বিত নাগরিক হিসেবে বিশ্বের দরবারে মাথা উচু করে দাঁড়াতে পারছি। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিশ্ব পরিমন্ডলে পরিচিত। আর তা সম্ভব হয়েছে, তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্ব এবং দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আরো সামনের দিকে এগিয়ে যাবে, এটাই হোক মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে আমাদের সকলের অঙ্গীকার।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং মরিশাসের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গদের সাথে নিয়ে কেক কাটেন।