বিশ্বের ধনী গায়িকার তকমা জেতা বিখ্যাত মার্কিন পপ তারকা রিয়ানা মাত্র দেড় সপ্তাহ হলো মা হয়েছেন। এই কদিনেই তার শিশুপুত্রের খুঁটিনাটি জানতে হামলে পড়েছে সংবাদমাধ্যম। অনুরাগীরাও পিছিয়ে নেই। রিয়ানা ও তার বয়ফ্রেন্ড অ্যাসাপ রকির ছেলের নাম কী হওয়া উচিত? প্রশ্ন তুলেছেন ভক্তরা। আবার রিয়ানা এবং অ্যাসাপের সম্পত্তি নিয়ে হিসাবনিকাশ করতেও বসে গেছেন অনেকে। মা-বাবার সম্পত্তি মিলিয়ে পুরোটার মালিকই তো এখন তাদের ফুটফুটে সন্তান! কিন্তু আসলে কত সম্পত্তির মালিক সে?

জন্মের পর থেকেই তারকার মতোই আলো কেড়ে নিচ্ছে রিয়ানা এবং অ্যাসাপের সংসারের এই খুদে সদস্যটি। এদিকে, সন্তানের ব্যাপারে মুখে রিয়ানা মুখে কুলুপ এটে থাকলেও, দুনিয়াজুড়ে সংবাদমাধ্যমে এ নিয়ে বেশ হইচই শুরু হয়ে গেছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমের দাবি, ১৩ মে লস অ্যাঞ্জেলেসে ফুটফুটে পুত্রসন্তান জন্মেছে রিয়ানা। তবে তার নাম এখনো ঠিক করেননি তারকা যুগল। রিয়ানা ঘনিষ্ঠ মহলের এক সূত্রের অবশ্য দাবি, মা-বাবার জন্মগত পরিচয়ের ঝলক দেখা যেতে পারে তাদের ছেলের নামে। গায়িকা হিসেবে আমেরিকায় খ্যাতি অর্জন করলেও রবিন রিয়ানা ফেন্টি যে আদতে বার্বাডোজের মেয়ে, তা যেন বোঝা যায় তার ছেলের নামে— এমন কথাও শোনা যাচ্ছে।


র‌্যাপার হিসাবে রিয়ানার বয়ফ্রেন্ড রকিম অ্যাথেলেস্টন মায়ার্স ওরফে অ্যাসাপও কম খ্যাতিসম্পন্ন নন। তবে নিউ ইয়র্কে জন্মালেও এস্যাপের শিকড়ও আসলে বার্বাডোজে ছড়িয়ে। ফলে দু'জনের সন্তানের নামে যে বার্বাডোজ সংস্কৃতির ছোঁয়া থাকবে, তেমনই মনে করছেন বহু অনুরাগী। অনেকে আবার দাবি করেছেন, তারকা যুগলের সন্তানের নামের আদ্যক্ষর হবে 'আর' (R) দিয়ে।

আজকাল রিয়ানা এবং অ্যাসাপের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে খবরের শিরোনাম হচ্ছে তাদের শিশুসন্তান। সন্তানের জন্মের পর লস অ্যাঞ্জেলেসের বাড়িতেই বিশ্রাম নিচ্ছেন রিহানা— আপাতত এই খবরের পাশাপাশি খুদের সম্পত্তি নিয়েও উৎসাহ কম নয় অনেকের।

তারকা যুগলের মধ্যে ৩৩ বছর বয়সী অ্যাসাপের সম্পত্তি নাকি অনেক কম, মাত্র এক কোটি ডলার। যদিও নিজের নামের একটি অক্ষরে ডলার চিহ্ন জুড়ে রেখেছেন তিনি! তবে বয়ফ্রেন্ডের চেয়ে রিয়ানা অনেকগুণ বেশি সম্পত্তির মালিক। চলতি বছর পর্যন্ত নাকি নিট ১৭০ কোটি ডলার কামিয়ে ফেলেছেন ৩৪ বছর বয়সী এই গায়িকা।

মা-বাবার সম্পত্তিকে হেসেখেলে টেক্কা দিয়েছে তাদের খুদে সন্তান। জন্মের পর দেড় সপ্তাহে মধ্যেই তার নামের পাশে সব মিলিয়ে ১৭০ কোটি পাউন্ড বসে গিয়েছে, বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ১৮ হাজার ৮১৫ কোটি টাকারও বেশি! খেই হারিয়ে ফেলার মতো সংখ্যাগুলো গোনার বয়সে শিশুটি না পৌঁছলে কী হবে, এটাই নাকি সত্যি!