পৌর নির্বাচনী সহিংসতা মামলার চার্জশিটে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে দেওয়া নৌকা সমর্থকদের নাম বাদ না দিলে গাইবান্ধাকে অচল করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন জেলা যুবলীগ নেতারা। বুধবার শহরের ডিবি রোডের ১নম্বর ট্রাফিক মোড় এলাকায় এই মানববন্ধনের আয়োজন করে গাইবান্ধা জেলা যুবলীগ।

গাইবান্ধা পৌরসভা নির্বাচনে সহিংসতা মামলায় নৌকা প্রতিকের পক্ষে কাজ করা জেলা যুবলীগ, পৌর আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীদের নাম নতুন করে জড়ানোর প্রতিবাদে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা যুবলীগের সভাপতি সরদার শাহীদ হাসান লোটনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন জেলা যুবলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দের মধ্যে আবু বকর কাজল, কামনাশীষ দেব বুলেট, মুকুল মিয়া, খন্দকার তানভীর রায়হান তুহিন, শাহনেওয়াজ পলাশ, মোবাশ্বের আহমেদ, আশরাফুল আলম পলাশ, শহিদুল ইসলাম মঞ্জু, রেজাউল করিম রেজা, জান্নাতুল ফেরদৌস কানন প্রমুখ।

২০২১ সালের ১৬ জানুয়ারি গাইবান্ধা পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষে শহরের কুঠিপাড়া এলাকায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে এলাকার কিছু লোকের সহিংস ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পরদিন ১৭ জানুয়ারি দুটি মামলা হয়। তখন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী রেল ইঞ্জিন প্রতীকের আনোয়ারুল হাসান সাহিব ও তার কর্মী সমর্থক ৪৯ জনকে আসামি করা হয়। কিন্তু মামলা দায়েরের এক বছরের বেশি সময় পর এজাহারনামীয় আসামিদের বাদ দিয়ে একটি স্বার্থান্বেষী মহলের ইন্ধনে জেলা যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ নেতাসহ ৩৪ জনের নামে চার্জশিট দেওয়া হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘যারা আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রার্থীর কাজ করেছেন, তাদের বিরুদ্ধেই চার্জশিট দেওয়া হয়েছে। তারা ঘোষণা করেন অবিলম্বে এই উদ্দেশ্যপ্রণোদিত চার্জশিট থেকে নতুন করে যুক্ত করা নাম বাদ না দিলে আগামীতে বিভিন্ন আন্দোলনের কর্মসূচির মাধ্যমে গাইবান্ধাকে অচল করে দেওয়া হবে।’