বৃহস্পতিবার বৃষ্টি হওয়ায় শুক্রবার দিনটায় আবহওয়া ততটা উত্তপ্ত ছিলো না যা এতোদিন ছিলো। এমন আবহাওয়া পূর্ব ঘোষণানুযায়ী এক মঞ্চে হাজির হলো দেশের সেরা ব্যান্ড মাইলস, আর্টসেল, ওয়ারফেজ, শিরোনামহীন, অ্যাভয়েড রাফা, ম্যাকানিক্স, তীরন্দাজ ও দৃক। তাদের এক মঞ্চে হাজির হওয়ার মানে তো বোঝেনই। গিটারে আর কণ্ঠে ঝর তোলা। সেই ঝরে তোলপাল করে দেওয়া উপস্থিত সবাইকে। হলোও তাই। 

আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) বাংলাদেশ আয়োজিত ‘জেসিআই রক ফেস্ট ২০২২’-এ দেশের জনপ্রিয় এই ৮টি রক ব্যান্ড পারফর্ম করে ছুটির দিনে। 

রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা (আইসিসিবি)-এর ১ নম্বর হলে দেশের প্রথম সারির ব্যান্ড দলগুলোর এই মিলনমেলার প্রথম ভাগে মঞ্চে ওঠে দৃক, ম্যাকানিক্স ও তীরন্দাজ। এরপর একে একে দেশের টপ ব্যান্ড অ্যাভয়েড রাফা, মাইলস, ওয়ারফেজ ও শিরোনামহীনের পারফরমেন্স মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে উপভোগ করেন উপস্থিত দর্শকরা।

রাত ১১টায় আর্টসেলের গানে পর্দা নামে জেসিআই বাংলাদেশ রক ফেস্ট ২০২২-এর। প্রত্যেক ব্যান্ড তাদের জনপ্রিয় ৫টি করে গান পরিবেশন করেন।

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে যুবসম্প্রদায়কে সমাজ গঠনে একতাবদ্ধ করতে এই কনসার্টের আয়োজন করে বলে জানিয়েছে জেসিআই বাংলাদেশের ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট নিয়াজ মোর্শেদ এলিট। 

তিনি বলেন, ‘তরুণ শক্তিকে এক করে দেশের উন্নয়ন করার উদ্দেশ্যেই আমরা এগিয়ে চলছি। জেসিআই বাংলাদেশের এই রক কনসার্ট সংগীতের সুরের মূর্ছনায় তরুণদের আরো উজ্জীবিত করবে বলে আমাদের বিশ্বাস। দর্শকদের ব্যাপক সাড়ায় আমরা মুগ্ধ।’

এই আয়োজনে একসঙ্গে প্রায় ৩ হাজার তরুণ-তরুণী অংশ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা। আগামী বছর গুলোতেও এমন গানের আয়োজন অব্যাহত থাকবে বলেও তারা আশা প্রকাশ করেছে। একই সঙ্গে উপস্থিত দর্শকরাও এই ধরনের রক ফেস্টের উদ্যোগ বারবার নেওয়ার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সী উদ্যমী তরুণদের একটি সংগঠন। জেসিআই সদরদপ্তর যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরির সেন্ট লুইসে অবস্থিত। ১২০টিরও বেশি দেশে এর কার্যক্রম রয়েছে এবং সারা বিশ্বে সংগঠনটির সদস্য সংখ্যা ২ লাখের বেশি। বাংলাদেশে বর্তমানে জেসিআই’র প্রায় ২৫ টির অধিক লোকাল অরগানাইজেশন কাজ করছে।