ফেরদৌসী রহমান। বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী। পল্লিগীতির সম্রাটখ্যাত আব্বাসউদ্দীন-কন্যার আজ ৮২তম জন্মদিন। এই শুভদিন উদযাপন, বর্তমান ব্যস্ততা ও অন্যান্য বিষয়ে কথা হয় তাঁর সঙ্গে-

জন্মদিনে সমকাল পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাকে শুভেচ্ছা। এবার জানতে চাই, দিনটি কীভাবে কাটানোর পরিকল্পনা করছেন?

শুভেচ্ছার জন্য সমকাল পরিবারের সবাইকে ধন্যবাদ। জন্মদিন আমার ব্যক্তিগত আনন্দের বিষয়। জীবনের এই বিশেষ দিনটি কখনও ঘটা করে পালন করিনি। জন্মদিনে শুভাকাঙ্ক্ষীরা শুভেচ্ছা জানান, যা আমাকে অন্য রকম ভালো লাগায় ভরিয়ে দেয়। এবার বাড়িতেই সাদামাটা কাটবে জন্মদিন। শুধু জন্মদিন নয়, প্রতিটি দিন আমি আমার মতো করে উপভোগ করি।

শৈশবে জন্মদিন পালন না হলে কি মন খারাপ হতো?

আমাদের সময়ে এখনকার মতো আয়োজন করে জন্মদিন পালন হতো না, যে জন্য মন খারাপ হয়নি। তা ছাড়া আব্বা পছন্দ করতেন না- এ দিনটি উদযাপন হোক। তিনি বলতেন, 'তুমি নিজে কেন জন্মদিন পালন করবে! তুমি এমন ভালো কিছু করবে, তাহলে দেশের মানুষ তোমাকে স্মরণে রাখবে। তারাই একদিন তোমার জন্মদিন উদযাপন করবে। মনে পড়ে, শুধু ম্যাট্রিক পরীক্ষায় ভালো ফল করার কারণে আব্বা আমার জন্মদিন উদযাপন করেছিলেন একবার। পরীক্ষার ফল প্রকাশ হয়েছিল ২৬ জুন। এর এক দিন পর জন্মদিন ছিল বলেই এটি পালন হয়েছে। ওই জন্মদিনে আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব, আব্বার কাছের লোকজন এসেছিলেন।

সংগীতের এই সময়কে কীভাবে দেখছেন?

আমরা সব দিকেই এগিয়ে ছিলাম। করোনা আমাদের মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিকে পিছিয়ে দিয়েছে। সংগীতশিল্পীদের মানুষের সামনে আসতে হয়। দুই বছর কোনো শো হয়নি। সবার আয় বন্ধ ছিল। তাঁরা কষ্টে দিন কাটিয়েছেন। আশা করছি, সব ঠিক হয়ে যাবে। আবার ঘুরে দাঁড়াবে মিউজিক ইন্ডাস্ট্র্রি। আমাদের ছেলেমেয়েদের অনেক মেধা আছে। তারা চাইলে বড় শিল্পী হতে পারবে। তাদের আরও তৈরি হতে হবে। তাদের সাধনার অভাব রয়েছে। এটা যদি তারা বোঝে, তাহলে ভালো শিল্পীর অভাব হবে না।

শুনেছি, আপনার জীবন ও কর্মের ওপর তথ্যচিত্র নির্মিত হয়েছে?

হ্যাঁ, আমার জীবন ও কর্মের ওপর একটি তথ্যচিত্র নির্মাণ করেছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা সন্দ্বীপ বিশ্বাস। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি প্রযোজিত ৪৯ মিনিট দৈর্ঘ্যের এ তথ্যচিত্রের নাম দেওয়া হয়েছে 'গানের পাখি'। এতে আমার জীবনের নানা দিক রয়েছে।

এ সময়ের ব্যস্ততা কী নিয়ে?

বিটিভির সংগীত শিক্ষার আসর 'এসো গান শিখি' অনুষ্ঠানটি নিয়মিত করছি। অনেক দিন ধরে আত্মজীবনী লিখছি। এক মলাটে তুলে ধরছি জীবনের নানা অধ্যায়। এ ছাড়া বই পড়া, গান শোনা, সিনেমা দেখেই সময় কাটছে।

জীবনে প্রাপ্তি অনেক। অপ্রাপ্তি আছে কি?

সবার ভালোবাসা পাওয়া কঠিন ব্যাপার। দেশের মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি- এটাই বড় প্রাপ্তি। আমার যতটুকু অর্জন করার ছিল, তা করেছি। জীবনে কিছুই করতে পারলাম না- এমন আক্ষেপ নেই। এক জীবনে অনেক পেয়েছি। সৃষ্টিকর্তা আমাকে অনেক দিয়েছেন। তাঁর প্রতি অসীম কৃতজ্ঞতা।

বিষয় : ফেরদৌসী রহমান

মন্তব্য করুন