ভারতের দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় জুটি নাগা চৈতন্য- সামান্থা রুথ প্রভুর বিচ্ছেদ হয় গত বছর। তবে বিচ্ছেদ নিয়ে এর আগে কথা বলতে খুব একটা আগ্রহ দেখাননি সামান্থা। গণমাধ্যমে বারবার জানতে চাইলেও বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন তিনি। কিন্তু সম্প্রতি মুখ খুলেছেন। কফি উইথ করণের কাউচে বসে বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে কথা বলেছেন তিনি। 

সম্প্রতি করণ জোহরের টক শো ‘কফি উইথ করণ’- এর একটি পর্বে হাজির হলে বিচ্ছেদ নিয়ে প্রশ্ন করলে সামান্থা বলেন, ‘এটি নিয়ে আমার কোনো অভিযোগ নেই। কারণ আমার পছন্দেই হয়েছে। আমি স্বচ্ছ থাকতে চেয়েছি এবং ব্যক্তিগত অনেক কিছুই প্রকাশ করেছি। ডিভোর্সের সময় খুব বেশি হতাশ হইনি। আমার বিষয়ে অনেকের জানার ইচ্ছা ছিল, কারণ তারা আমার ওপর বিনিয়োগ করেন। তাদের প্রশ্নের উত্তর দেওয়া আমার দায়িত্ব। যদিও সেই সময় বেশি কিছু বলিনি।’

করণ জোহর জানতে চান মানসিকভাবে এখন শক্তিশালী কি না? উত্তরে সামান্থা বলেন, ‘এটি অনেক কঠিন ব্যাপার, তবে ভালো আছি। সব ঠিকঠাক। আগের চেয়ে এখন অনেক শক্তিশালী।’

প্রাক্তন স্বামী নাগা চৈতন্যকে নিয়ে কোনো তিক্ত অনুভূতি রয়েছে কি না প্রশ্ন করা হলে জবাবে সামান্থা বলেন, ‘মনে করুন দু’জন এক ঘরে আছি। তাহলে ধারালো সব জিনিস লুকিয়ে রাখতে হবে। হ্যাঁ, এখন পর্যন্ত পরিস্থিতি এমনই। এখন সমঝোতার কোনো সম্ভাবনা নেই। ভবিষ্যতে হয়তো হতে পারে।’

দীর্ঘদিন প্রেমের পর ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর  বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন নাগা ও সামান্থা। তেলেগু ভাষার ‘ইয়ে মায়া চেসাভ’ সিনেমার সেটে নাগা চৈতন্য ও সামান্থার বন্ধুত্ব হয়। পরে প্রেম ও বিয়ে। কিন্তু চার বছরের মাথায় ভেঙে যায় সংসার। গত বছরে ২ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে ডিভোর্সের ঘোষণা দেন নাগা-সামান্থা।