নয় মাসের প্রবাস জীবন শেষে আগামী ১৫ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক থেকে ঢাকায় ফিরছেন ঢাকাই ছবির সুপারস্টার শাকিব খান। ফিরেই 'মায়া' ছবির শুটিং শুরু করার পরিকল্পনা তার। সরকারি অনুদান পাওয়া এই ছবির পরিচালক হিসেবে নাম প্রস্তাব ছিলো হিমেল আশরাফের। তথ্যমন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রকাশিত প্রজ্ঞাপনে সেটাই জানানো হয়।

কিন্তু হুট করে 'মায়ার' পরিচালক পরিবর্তনের খবর প্রকাশ্যে আসে। জানা যায় ছবিটির পরিচালক হিসেবে থাকছেন না হিমেল আশরাফ। পরিচালক পরিবর্তনের খবর প্রকাশ্যে আসার পর ছবিটির পরিচালক কে হচ্ছেন সেটা নিয়েও নতুন করে কৌতুল তৈরি হয়।  এ সময় তরুণ পরিচালক রায়হান রাফির নামও উঠে আসে। মিডিয়া পাড়ায় গুঞ্জন উঠে মায়ার পরিচালক রাফিই হচ্ছেন।

কিন্তু রাফির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি শাকিব খানকে নিয়ে ছবি বানানোর ইচ্ছে প্রকাশ করলেও ঠিক 'মায়া' ছবিই যে নির্মাণ করবেন সেটা জানান। তার কথায় মায়া ছবির পরিচালক তিনি হচ্ছেন না সেটা পরিষ্কার হয়। 

পরে  একাধিক সূত্রের বরাতে জানা যায়, 'মায়া' ছবির পরিচালক হচ্ছেন নির্মাতা এস এ হক অলিক। যিনি শাকিব খানকে নিয়ে এর আগে সরকারি অনুদানের ছবি 'গলুই' নির্মাণ করেন। 'গলুই' ছবির আমেরিকায় মুক্তি উপলক্ষে তিনি দীর্ঘদিন আমেরিকায়তেই অবস্থান করে আসছিলেন। সেখানেই 'মায়া'র নির্মাণ নিয়ে কথা হয় শাকিবের সঙ্গে। 

অলিকই যে 'মায়ার' ডিরেক্টর হচ্ছেন এর নিশ্চয়তা জানতে ফোন করা হয় তাকে। হোয়াটস্যাপে বিষয়টি জানতে চাওয়া হলে অলিক বলেন, এমন কোনো কথা এখনও আমার সঙ্গে হয়নি।

তবে অলিক বিষয়টি না করলেও শাকিব খানের একাধিক ঘনিষ্টজনের বরাতের খবর। এস এ হক অলিকই নির্মাণ করবেন 'মায়া'।

তবে শাকিব খান দেশে না আসা পর্যন্ত আপাতত কোনো কিছুই নিশ্চিত খবর নয়। ১৫ আগস্ট তিনি আসার পরই মায়া নিয়ে বিস্তারিত আপডেট জানাবেন তিনি। খোলাসা হবে  কে বানাচ্ছেন সরকারের ৬৫ লাখ টাকা অনুদান পাওয়া শাকিব খানের এই ছবি। 

ছবিটিতে শাকিব খানের বিপরীতে নায়িকা হিসেবে থাকছেন পূজা চেরি। আর কোন শিল্পী এতে অভিনয় করছেন সেটাও আপাতত চূড়ান্ত নয়।