দীর্ঘ ৭০ বছর পর বড়সড় পরিবর্তন এলো মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার সিলেকশন প্রক্রিয়ায়। এই বছর বিশ্বের সেরা সুন্দরীর তকমা পেয়েছেন ভারতীয় কন্যা হরনাজ সান্ধু। এতদিন অবধি শুধুমাত্র অবিবাহিতরাই অংশগ্রহণ করতে পারতেন এই প্রতিযোগিতায়। এবার প্রক্রিয়াতে পরিবর্তন আনলেন এই প্রতিযোগিতার কমিটিতে থাকা সদস্যরা। আগামী বছর থেকেই এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন বিবাহিত নারীরা, এমনকি মায়েরাও। 

নিউইয়র্ক পোস্টের এক খবরে জানানো হয় যে, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সবকিছুরই পরিবর্তন ঘটে। এটি তারই অংশ। এই সিদ্ধান্তটি সময়ের নিরিখে খুবই স্বাভাবিক একটি সিদ্ধান্ত। 

তবে তাদের এই সিদ্ধান্ত যে যুগান্তকারী ও ঐতিহাসিক তা একবাক্যে স্বীকার করেছে গোটা ফ্যাশন দুনিয়া।

আগামী বছর অর্থাৎ ২০২৩ সালে ৭২তম মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় লাগু হবে এই নিয়ম। যেখানে অংশগ্রহণ করতে পারবেন বিবাহিতরাও। 

মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার আয়োজকরা জানিয়েছেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, যেকোনো নারীর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত যেন তার জীবনের সাফল্যে বাধা না হয়ে দাঁড়ায়।’ 

ইতোমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে ২০২২ সালের মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের প্রক্রিয়া। ২০২২ সাল অবধি একমাত্র ১৮ থেকে ২৮ বছর বয়সী অবিবাহিত নারীরাই এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারত। সন্তানের মায়েরা তো দূরঅস্ত, বিবাহিত বা ডিভোর্সড হলেও এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার নিয়ম ছিল না। এবার ১৮ থেকে ২৮ বছর বয়সী যেকোনো নারীই হতে পারেন মিস ইউনিভার্স। তবে বয়সের ক্ষেত্রে কোনো পরিবর্তন হচ্ছে কিনা তা এখনও জানায়নি মিস ইউনিভার্স কতৃর্পক্ষ। 

মিস ইউনিভার্সের পাশাপাশি নিউইয়র্কের এই সংস্থা আয়োজন করে মিস ইউএসএ ও মিস টিন ইউএসএ প্রতিযোগিতা।