ঢাকাই সিনেমা ইন্ডাষ্ট্রিতে নতুন জোয়ার উঠেছে। এই জোয়ারের সূচনাটা হয় গত রোজার ঈদ থেকে। সে ঈদে শান ও গলুই ছবির মাধ্যমে দর্শকরা হলে ফিরতে শুরু করে। ফলে চারদিকে হাউজ ফুল দর্শকদের সুখবর আসে।  পরবর্তী ঈদে সেই জোয়ার বিস্তৃত হয় আরও। ঈদুল আজহায় মুক্তি পাওয়া লাইভ টেকনোলজি প্রযোজিত ছবি 'পরাণ' এর হচ্ছে সুপার বাম্বার হিট।   রায়হান রাফির পরিচালনায় শরিফুল রাজ, বিদ্যা সিনহা মিম ও ইয়াশ রোহান অভিনীত হৃদয়স্পর্শী ত্রিভুজ প্রেমের সিনেমা ‘পরাণ’ মুক্তির একমাস পরও যাচ্ছে হাউসফুল।

সিনেমাটির জয়রথ থেমে নেই বাংলাদেশে, দেশের বাইরেও একই চিত্র। অস্ট্রেলিয়াতেও মুক্তির পর সেখানকার দর্শক লুফে নিয়েছে ‘পরাণ’।

কোরবানির ঈদে দেশের মাত্র ১১ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিল ‘পরাণ’। মুক্তির ৩০ দিনের আয়ে সিনেমাটিকে ‘ব্লকবাস্টার সুপারহিট’ বলছে সিনেমাটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান লাইভ টেকনোলজিস। এনটিভি অনলাইনের সঙ্গে এক দীর্ঘ আলাপে এমনটা জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক ও প্রযোজক ইয়াসির আরাফাত।

 মুক্তির একমাসে সিনেমা হল থেকে ‘পরাণ’ কত টাকা আয় করেছে, এমন প্রশ্নে ইয়াসির আরাফাত হিসাব চূড়ান্ত না হওয়ায় সুনির্দিষ্ট সংখ্যা না জানালেও বলেছেন, ‘আমাদের ইনভেস্টমেন্টের চার গুণ বা পাঁচ গুণ; এ রকম। আমরা এখনও পর্যন্ত যে রিপোর্ট পেয়েছি, সে রিপোর্ট অনুযায়ী আমরা এই ফিল্মে যে ইনভেস্টমেন্ট করছি, সেইম ইনভেস্টমেন্টের মতোই আমরা আরও দুইটা থেকে তিনটা ফিল্ম করতে পারব।’

হুট করে সিনেমাটির এমন সফলতা পাওয়ার কারণ হিসেবে ইয়াসির আরাফাত বলছেন, ‘আমার কাছে মনে হয়েছে যে, বাংলাদেশে এই ধরনের ফিল্মের অনেক বছরের একটা গ্যাপ ছিল। তার মধ্যে করোনায় হল বন্ধ ছিল। ফিল্মটা আসার পর যখন দেখলাম এত পরিমাণে দর্শক এবং দর্শকের ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ নারী এবং সিনেপ্লেক্সে আমরা যে রিপোর্ট পাচ্ছি সেটার সাথে প্রত্যেকটা টিকেট যাচ্ছে গ্রুপের মধ্যে ৮ জন, ১০ জন, ৬ জন। সব শ্রেণির লোক এই মুভিটা দেখতেছে। আমরা যদি বলি উচ্চ মধ্যবিত্ত, মধ্যবিত্ত থেকে শুরু করে সকলেই এই মুভিটি দেখতে আসতেছে। অনেক দিন পরে এ ধরনের মুভি আসছে, এ জন্য আমাদের মুভিটাও ভালো ছিল এবং আমরা যেটা বলব যে আমাদের ডিরেক্টর এবং আমাদের আর্টিস্ট, তাঁদের যে অলরাউন্ডার পারফরম্যান্স, এ জন্যই ফিল্মটা সবাই দেখতে আসছে।’

 ‘পরাণ’ সফলতার পর লাইভ টেকনোলজিস কি নিয়মিত সিনেমা নির্মাণ করবে? ইয়াসির আরাফাত জানালেন, ‘ফিল্ম লাইভ টেকনোলজিস্ট প্রডিউস করবে, সেটা অলরেডি মানে আমার কোম্পানির আরেকজন ডিরেক্টর তামজিদ অতুল, সে ডিক্লেয়ার করছে যে আমরা দুইটা করে ফিল্ম ইয়ারলি প্রডিউস করব।’

 ঈদুল আজহায় দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে হৃদয়স্পর্শী ত্রিভুজ প্রেমের গল্পের সিনেমা ‘পরাণ’। চিত্রনায়ক শরিফুল রাজ, বিদ্যা সিনহা মিম ও ইয়াশ রোহান অভিনীত সিনেমাটি নিয়ে অন্তর্জালে আলোচনা চলেছে বেশ। আলোচনার কেন্দ্রে এসেছেন সিনেমাটির নায়ক শরিফুল রাজ; দর্শক প্রশংসায় মেতেছেন এ চিত্রনায়কের অভিনয়ের।

বরগুনার আলোচিত মিন্নি-রিফাত-নয়ন বন্ডের ঘটনার ছায়া অবলম্বনে নির্মাণ হয়েছে এই সিনেমা।

 ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে সিনেমাটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়। চিত্রনাট্য করেছেন শাহজাহান সৌরভ ও রায়হান রাফি। সংগীত পরিচালক নাভেদ পারভেজ ও ইমন চৌধুরী। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন তরুণ পরিচালক রায়হান রাফি।