বলিউড তারকাদের অনেকেই একেকটা ছবির জন্য কয়েক কোটি  টাকা পর্যন্ত পারিশ্রমিক নেন। কিন্তু এই তারকার অনেকেই প্রথম ছবিতে কত পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন তা অনেকেরই অজানা।

সালমান খান:  ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া' ছবির মাধ্যমে বলিউডে প্রধান অভিনেতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন সুপারস্টার  সালমান খান। এই ছবির জন্য তিনি মাত্র ৭৫ হাজার রুপি পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন। এর আগে তিনি ‘বিবি হো তো অ্যায়সি' সিনেমায় একটি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। ওই ছবিতে অভিনয়ের জন্য তিনি মাত্র ১১ হাজার রুপি পেয়েছিলেন।

শাহরুখ খান : ১৯৯২ সালে ‘দিওয়ানা' ছবির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। এই ছবির জন্য তিনি চার লাখ রুপি পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন। এই সিনেমায় তার চরিত্রটি সহজেই দর্শকের মনে জায়গা করে নিয়েছিল। শাহরুখ খান এই চরিত্রের জন্য সেরা পুরুষ নবাগত হিসাবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারও জিতেছিলেন।

অক্ষয় কুমার : বলিউডের আরেক সুপারস্টার অক্ষয় কুমার‘সৌগন্ধ' সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রেখেছিলেন। এই সিনেমায় তিনি শিব কিরপলানির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এই চরিত্রের জন্য, তাকে দেওয়া হয়েছিল ৫১ হাজার রুপি।

আলিয়া ভাট : বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী আলিয়া ভাট ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার' ছবির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেছিলে ২০১২ সালে। তিনি সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন এই চরিত্রের জন্য তাকে ১৫ লাখ রুপি পারিশ্রমিক দেওয়া হয়েছিল।

আমির খান : বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট হিসেবে পরিচত আমির খান ‘কেয়ামত সে কেয়ামত তক' সিনেমার মধ্যে দিয়ে ১৯৮৮ সালে বড় পর্দায় আত্মপ্রকাশ করেছিলেন। এই চরিত্রের জন্য, তাকে পারিশ্রমিক দেওয়া হয়েছিল ১১ হাজার রুপি।

অমিতাভ বচ্চন:  ১৯৬৯ সালের ‘সাত হিন্দুস্তানি' ছবির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন। বিগ বি তার প্রথম সিনেমার জন্য পারিশ্রমিক হিসেবে পাঁচ হাজার রুপি পেয়েছিলেন।

দীপিকা পাড়ুকোন : ২০০৭ সালে ‘ওম শান্তি ওম' সিনেমার মধ্যে দিয়ে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। প্রথম সিনেমাতেই দীপিকা দর্শকের মন জয় করে নেন। রিপোর্ট অনুযায়ী, দীপিকা তার প্রথম সিনেমার জন্য কোনো পারিশ্রমিক নেননি।

শহীদ কাপুর :  ২০০৩ সালে ‘ইশক ভিশক' সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন শহীদ কাপুর। এই রোমান্টিক কমেডির জন্য তাকে দেড় লাখ রুপি পারিশ্রমিক দেওয়া হয়েছিল।

সিদ্ধার্থ মালহোত্রা
: আলিয়া ভাটের মতো সিদ্ধার্থ মালহোত্রাও ২০১২ সালে ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার' সিনেমার মধ্যে দিয়ে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন। এই সিনেমার জন্য তিনি যে প্রথম বেতনের চেক পেয়েছিলেন তা ছিল ১ লাখ ১০ হাজার রুপির। যার অর্ধেকটা তিনি পার্টিতে ব্যয় করেছিলেন।