৫৭-এ পা দিলেন কিং খান। প্রতি বছর এই দিনটির জন্য অপেক্ষায় থাকেন তার ভক্তরা। এক নজর দেখবেন বলে  ‘মান্নাত’-এর বাইরে অগণিত মানুষের ভিড়। প্রিয় তারকাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে দূর–দূরান্ত থেকে ছুটে আসেন ভক্তরা। এবারও তার ব্যতিক্রম ছিল না। গতকাল রাতে ‘মান্নাত’-এর সামনে ভিড় করেছিলেন কিং খানের হাজার হাজার ভক্ত। শাহরুখও তার ভক্তদের নিরাশ করেননি। মধ্যরাতে দেখা দিয়েছিলেন তিনি।

মধ্যরাতে মন্নতের বারান্দা থেকে হাত নাড়েন ভক্তদের উদ্দেশে, সঙ্গী ছিল ছোট  ছেলে আব্রাম। কিন্তু, এই দিনটা কী ভাবে কাটাবেন শাহরুখ খান? সেই নিয়ে ভক্তদের উৎসাহের অন্ত নেই। যদিও দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এসআরকে-ভক্তরা তাদের প্রিয় তারকার জন্মদিন পালনে কোনও কমতি রাখছেন না। নিজের জন্মদিনে কোনও এলাহি আয়োজন নয়, বরং পুরোটাই ভীষণ ঘরোয়া রাখতে চাইছেন শাহরুখ।

নভেম্বর মাস মানেই মন্নতে হইহই কাণ্ড। একে তো শাহরুখের জন্মদিন, তার পর ১৩ নভেম্বর রয়েছে ছেলে আরিয়ানের জন্মদিন। এ ছাড়াও দীপাবলিও বেশ এলাহি ভাবে উদ্‌যাপন করা হয় মান্নাতে। কিন্তু তাল কাটল এ বছর। এ বার কোনও অনুষ্ঠানেই খুব বেশি আয়োজন করতে নারাজ খান পরিবার।

আনন্দবাজার এ  সূত্রের খবর, এই বছর এক পাঁচতারা হোটেলে ভক্তদের সঙ্গে কেক কেটে সময় কাটাবেন কিং খান। তাঁর কঠিন সময়ে যাঁরা পাশে ছিল, তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাবেন কিং খান।

১৯৮৯ সালে ‘দিওয়ানা’ ছবি দিয়ে বড় পর্দায় তাঁর অভিষেক হয়। তার পর চার দশক কেটে গিয়েছে কিং অফ রোম্যান্সের ট্যাগ জুড়েছে তাঁর নামের সঙ্গে। তবে বয়স বেড়েছে। রোম্যান্স ছেড়ে পুরোদমে অ্যাকশনে ফিরেছেন শাহরুখ। সামনেই একগুচ্ছ ছবি মুক্তি রয়েছে তাঁর যার মধ্যে সবচেয়ে প্রতীক্ষিত হল ‘পাঠান’। এ ছাড়াও ২০২৩ মুক্তি পাবে শাহরুখের ‘জওয়ান’ ও ‘ডাঙ্কি’র মতো ছবিগুলি।