সম্রাট শাহজাহান এবং মমতাজের শোবার ঘরে দাঁড়িয়ে আছেন জনপ্রিয় জুটি শাকিব খান ও বুবলী। সোমবার হুট করেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেই ছবিটি পোস্ট করেছেন বুবলী। ক্যাপশনে তিনি তিনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন ছবিটি সম্রাট শাহজাহান এবং মমতাজের শোবার ঘরে। 

বুবলী লিখেন,যে জায়গায় টায় আমরা দাঁড়িয়ে আছি এটি সম্রাট শাহজাহান এবং মমতাজ এর শোবার ঘর। বিয়ের পর শুটিং এ দুজনেই খুব ব্যস্ত ছিলাম কিন্তু তার ফাঁকেও খুব অল্প সময়ের জন্য ভারতের উত্তর প্রদেশে আগ্রায় অবস্থিত ভালোবাসার সবচেয়ে বড় নিদর্শন তাজমহল দেখতে নিয়ে গিয়েছিলেন উনি আমাকে । খুব প্রিয় একটি ছবি এটি আমার।

ক্যাপশনেই বুবলী বুঝিয়ে দিয়েছেন শাকিব খানের সঙ্গে ফেলে আসা স্মৃতিকে মিস করছেন তিনি। মিস করছেন তার সঙ্গে কাটানো সময়কেও।  ছবির কমেন্ট বক্সে এই ক্যাপশন ও ছবিতে বেশ বাহবা পাচ্ছেন বুবলী।  এ দম্পতি, এ জুটি যেনো ভালো থাকেন এ কামনাই করছেন মন্তব্যের ঘরে। 

এদিকে বুবলী বেশ ফুরফুর মেজাজেই আছেন এখন।  এবারের জন্মদিনে শবনম বুবলী সেরা উপহার পেয়েছেন স্বামী শাকিব খানের থেকে। সেটি ডায়মন্ডের নাকফুল। বিশেষ দিনের এক সপ্তাহ আগে এই উপহার দিয়েছেন ঢালিউড খান।

গণমাধ্যমকে বুবলী বলেছেন, ‘আমি আগে থেকে জানতাম না উপহারটি কী। যখন খুলে দেখলাম নাকফুল, দেখে আমার চোখে জল চলে এসেছিল। এটি হাতে নিয়ে আমি আবেগপ্রবণ হয়েছিলাম। আমি মনে করি, এ উপহার আমার জন্য তার অন্য রকমের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ।’

শাকিব খানকে নিয়ে আরও একটি মজার তথ্য জানিয়েছেন শবনম বুবলী। সেটি হলো, জন্মদিনে শাকিব খান সবার আগে উইশ করেছেন তাঁকে।

বুবলীর ভাষ্য, ‘সেভ জোনে থাকে সে (হা হা হা...)। এবারও এক দিন আগে গতকালই (১৯ নভেম্বর) আমাকে উইশ করেছে। তো এভাবে কেন আগের দিনই উইশ করে, তাকে বললে সে বলে, আমি ভুলে যেতে পারি, এ জন্য আগেভাগেই করে ফেললাম। পরে স্পেশাল আয়োজন তো হবেই।’

শবনম বুবলী শেষ করেছেন ‘প্রহেলিকা’ সিনেমার শুট। হাতে আছে ‘মায়া’ ও ‘দেয়ালের দেশ’ সিনেমা। মুক্তির অপেক্ষায় আছে  ‘প্রেম পুরাণ’, ‘রিভেঞ্জ’ ‘লিডার : আমিই বাংলাদেশ’ সিনেমা।