কলকাতার অভিনেতা জিতু কামালের স্ত্রী ও অভিনেত্রী নবনীতা দাসকে ধর্ষণ ও খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে থানায় অভিযোগ করেছেন। আর এতে করেই মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন নবনীতা। 

 বৃহস্পতিবার কলকাতার ব্যারাকপুর কমিশনারেট এলাকায় জিতুর গাড়িকে ধাক্কা মারার অভিযোগ ওঠে এক যুবকের বিরুদ্ধে। এরপর 'অপরাজিত' খ্যাত অভিনেতা এবং তার স্ত্রী যখন নিমতা থানায় গিয়ে অভিযোগ জানান তখনই তাদের ধর্ষনের হুমকি দেওয়া হয় ।

আর এ ঘটনা নবনীতা ফেসবুক লাইভ করে জানান। নবনীতার দাবি, থানায় পুলিশের সামনেই নাকি অভিযুক্ত যুবক তাকে ধর্ষনের হুমকি দিয়েছেন। তার কথায়, রেপ করে দেব, ডেড করে দেব বলে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাও থানার সামনে দাঁড়িয়ে। তাহলে বাইরে কী হবে? আমাদের দোষ এটাই যে আমরা গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বেড়িয়েছি। খুব বড় অন্যায় এটা! তাই আমাদের এভাবে থ্রেট করা হচ্ছে।'

পরে আরও একটি ফেসবুক লাইভ করে নবনীতা জানান, তিনি নিরাপত্তার ভয়ে বাইরে বেরতে পারছেন না। অথচ পুলিশ নাকি তাকে থানা থেকে বেরিয়ে যেতে বলছে। 

ভারতীয় গণমাধ্যমকে জিতু জানান, নবনীতাকে নিয়ে হাসপাতালে গিয়েছেন তিনি। মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন নবনীতা।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বিরাটি থেকে সোদপুর যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে এই দম্পতি।  জানিয়েছেন, মাজেরহাটি ক্রসিংয়ের কাছে গাড়ি নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। সেই সময় একটি ছোট গাড়ি তাদের গাড়িতে এসে ধাক্কা দিয়ে বেরিয়ে যায়। পরে থানায় অভিযোগ করার পরই হুমকীর মুখে পড়ছেন তারা।