ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ছেলের জন্য তুঙ্গে থাকা ক্যারিয়ার বিসর্জন দিয়েছি: শাবনূর

ছেলের জন্য তুঙ্গে থাকা ক্যারিয়ার বিসর্জন দিয়েছি: শাবনূর

শাবনূর ও তার ছেলে আইজান

বুলবুল ফাহিম

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৩:১৭ | আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৪:৫৫

চিত্রনায়িকা শাবনূর। দীর্ঘ বিরতির পর আবারও সিনেমার নিয়মিত হলেন এই অভিনেত্রী। ‘রঙ্গনা’ নামের একটি ছবিতে কাজ করছেন তিনি। আরাফাত হোসাইন পরিচালিত এই সিনেমার মহরত হয় গত শনিবার সন্ধ্যায়। এই ছবি ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে সমকালের সঙ্গে কথা করেছেন তিনি।

অনেক দিন পর কাজে ফিরলেন, প্রস্তুতি কেমন?
প্রস্তুতি নিচ্ছি। অনেক দিন পর দর্শকরা আমায় পর্দায় দেখবেন। তাই তাদের নিরাশ করতে চাই না। আর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই আমায় পুরোপুরি ফিট না হয়ে কাজ না করার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন। তাই দর্শকের কথা মূল্যায়ন করে পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়েই কাজ শুরুর চিন্তা আছে। এই ছবির চিত্রায়ণ আরও আগে হওয়ার কথা ছিল।

তাহলে আপনার এই প্রত্যাবর্তন দারুণ হবে...
শিল্পীদের ফিরে আসা বলে কিছু নেই। যখনই জুতসই গল্প-টিম পাওয়া যাবে, তখনই শিল্পীরা কাজ করতে পারবেন। ফলে জীবনে কামব্যাক বলে কোনো শব্দ নেই। যে কোনো সময় যে কোনো চরিত্র সাজিয়ে দিলে আমরা অভিনয় করতে পারব। অনেক শিল্পী আছেন, যারা ৭০ বছর বয়সে অস্কার পেয়ে যান। সত্যি বলতে শিল্পীদের কোনোদিন মৃত্যু হয় না। আমরা শিল্পী, তাই শেষ বয়স পর্যন্ত কাজ করে যেতে চাই। 

এতদিন পর অভিনয়ে ফিরলেন, তাও নতুন পরিচালকের সঙ্গে, রহস্য কী?
বরাবরই নতুনদের সঙ্গে কাজ করতে পছন্দ করি। মোস্তাফিজুর রহমান মানিক, আজাদী হাসানাত ফিরোজসহ আরও অনেক নতুন পরিচালকের সঙ্গে কাজ করেছি। একসময় আমিও নতুন ছিলাম। আর আমি মনে করি, নতুনদের সুযোগ দেওয়া প্রয়োজন। কারণ নতুনরাই ভালো করে।

‘রঙ্গনা’ ছবি শুরু না হতেই ‘এখনো ভালোবাসি’ সিনেমার ঘোষণা করলেন?
এটা কিন্তু কাকতালীয়। ‘রঙ্গনা’ আর ‘এখনো ভালোবাসি’ ছবিটি একই প্রযোজনা সংস্থা থেকে হচ্ছে। তাই ‘রঙ্গনা’ শেষ করে আমরা আরেকটি সিনেমার কাজ করব।

আপনার হাত দিয়ে অনেক সিনেমা সুপারহিটের তকমা পেয়েছে। এটাও কি সুপারহিট হবে?
১৫ বছর আগে আমি যে কাজ করেছি, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এখন অনেক কিছুর পরিবর্তন হয়েছে। মানুষের জীবনযাত্রায় পরিবর্তন এসেছে। আমার কাছে যখন ‘রঙ্গনা’র প্রস্তাব এসেছে, গল্প শুনেই রাজি হয়ে গেছি। কারণ, ‘রঙ্গনা’র গল্প এই সময়ের। আর ছবি হিট বা ফ্লপ ভাগ্যের ব্যাপার।

শাকিব খানের সঙ্গে অনেক কাজ করেছেন, এখনও তাঁর সঙ্গে কাজ করতে চান?
শাকিব এখন সুপারস্টার। সে আমার ভালো বন্ধুও। অনেক কষ্ট করে শাকিব এতদূর এসেছে। আমি দেখেছি, শুটিংয়ের সময় শাকিব কখনও বসেনি। কাজের বিষয়ে সে খুব সিরিয়াস। তার সঙ্গে আমার বোঝাপড়াটা বেশ ভালো। পরিচালক ও প্রযোজক যদি আমাদের নিয়ে কাজের পরিকল্পনা করেন, অবশ্যই করব।

আপনাকে নিয়ে নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী ‘মাতাল হাওয়া’ ছবির ঘোষণা দিয়েছেন। সেটার কাজ শুরু হচ্ছে কবে?
‘মাতাল হাওয়া’র গল্প নিয়ে চয়নিকা চৌধুরীর সঙ্গে কথা হয়েছে। কিন্তু এখনও আমরা চুক্তিবদ্ধ হইনি। তিনি যদি আমাকে নিয়ে কাজটি করেন আমি রেডি আছি। 

তাহলে কোন সিনেমা দিয়ে আবারও ক্যামেরার সামনে দাঁড়াচ্ছেন?
কোনটা দিয়ে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াব– সেটা আসল কথা নয়। তবে অনেক দিন আগে থেকেই আমরা ‘রঙ্গনা’র কাজ করছি। এই ছবির জন্যই দেশে এসেছি। এর মধ্যে আরও দুটি কাজের প্রস্তাব পেলাম। এটার মধ্য দিয়েই আগামী ছবিগুলোর মধ্যে ঢুকতে চাই। 

ক্যারিয়ারে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় আপনি অস্ট্রেলিয়ায় চলে গেলেন। আলাদা কোনো কারণ ছিল?
আমার ভাই-বোনসহ সবাই অস্ট্রেলিয়ায়। মূলত আমার ছেলের জন্য সেখানে গিয়েছি। নিজের কথা কখনও ভাবিনি। আমার জনপ্রিয়তা যখন তুঙ্গে, তখন ভেবেছি– আমার জীবনে তো অনেক কিছু হয়েছে- এখন তো ছেলেকে মানুষের মতো মানুষ করতে হবে। বলা চলে, ছেলের জন্য তুঙ্গে থাকা ক্যারিয়ার বিসর্জন দিয়েছি।

আপনার ছেলে আইজান কি অভিনয়ে আসবে?
আমি আমার ছেলেকে হিরো বানাচ্ছি কি না সেটা জানিনা। তবে এটা চাই সে ভালো একটা মানুষ হোক।

আরও পড়ুন

×