ঢাকা মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪

পাঠান না এনে আমাকে দিয়ে পাঠান তৈরি করুন: জায়েদ খান

পাঠান না এনে আমাকে দিয়ে পাঠান তৈরি করুন: জায়েদ খান

জায়েদ খান

বিনোদন প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৯ মার্চ ২০২৩ | ০৭:৩৩ | আপডেট: ০৯ মার্চ ২০২৩ | ১০:৫৪

দেশের হলে হিন্দি ছবি না এনে এ দেশের নায়কদের নিয়ে 'পাঠান'-এর মত ছবি তৈরি করতে প্রযোজক ও সিনেমা প্রদর্শকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান। তিনি বলেন, 'এ দেশে পাঠান আনার কি প্রয়োজন? তার চেয়ে পাঠান না এনে আমাকে বা আমাদেরকে দিয়ে পাঠানের মত তৈরি করুন। আমাদের দিয়ে বলিউডের ছবির মত ছবি বানান।'

বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২১ বিতরণ অনুষ্ঠানে পারফর্ম করার আগে মহড়ায় অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে এ কথা বলেন জায়েদ খান। 

দেশে ‘পাঠান’ বা হিন্দি ছবি মুক্তি পেলে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি নেপালের মতো হবে বলে মন্তব্য জায়েদ খানের। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘এক কোটি টাকা বাজেটের সিনেমা কখনোই একশ' কোটির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে টিকতে পারবে না।’

জায়েদ খান জানান, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানে তিনি এককভাবে নাচবেন ‘পিচ ঢালা পথটাকে ভালোবাসেছি’ গানটিতে।

মহড়ার ফাঁকে জায়েদ খানের সঙ্গে কথা হয় বাংলাদেশে হিন্দি ছবির মুক্তি প্রসঙ্গে। তিনি বলেন, 'দেশীয় সংস্কৃতির বিকাশ লাভে আমি শুরু থেকে হিন্দি ছবির বিপক্ষে। সবসময় চাইবো হিন্দি ছবি যাতে এখানে না আসে।'

জায়েদ বলেন, 'গত ১৬ দিন মুম্বাই ছিলাম কাজে। সেখানে ক’দিনে হিন্দি শিখে গেছি। আমাদের হলগুলোতে হিন্দি ছবি চললে শিশুরা হিন্দি ভাষা শিখবে। বাংলা সংস্কৃতি চর্চা ভুলতে শুরু করবে। যে ভাষার জন্য রক্ত দেওয়া হলো, যুদ্ধ করা হলো, সেই ভাষা হারিয়ে যাবে। হিন্দি ছবি আনার চেয়ে আমাকে তৈরি করেন।'

তিনি মনে করেন, ''শত কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হিন্দি ছবি বাংলাদেশে এলে এদেশের সিনেমা ধ্বংস হয়ে যাবে। তিনি বলেন, 'পাঠান' এলে ‘ওরা সাতজন’ নামে যে সিনেমাটি রিলিজ হলো সেটার অবস্থা কী হতো? কোনো হল পেত? আর আমাদের দেশে হল নামে যেসব গোটাউন আছে সেগুলো ঠিক করে ভালো পরিবেশ দেন, দেখবেন দর্শক বাংলা ছবি দেখতে আসবে। এক পাঠান নিয়ে লাফিয়ে লাভ নেই। সব ছবি হিট হয় না। শেহজাদা, সেলফি সবগুলো ফ্লপ গেছে।''

কেন মুম্বাই গিয়েছিলেন- জানতে চাইলে মুচকি হেসে জায়েদ খান বলেন, 'সেটা শিগগির জানা যাবে। ক'দিন পর আবার যাবো। তবে গিয়ে অনেক কেনাকাটা করেছি। যতদিন সংসার না করছি আমি ইয়াং। ব্যাচেলর থাকলে সংসার সামলাতে হয়। তাই নিজেকে ফ্যাশন সচেতনভাবে তুলে ধরি। তাছাড়া সংসার করার জন্য মানসিক প্রস্তুতি লাগে সেই প্রস্তুতিটা আমার আসলে হয়নি। কবে মানসিকভাবে প্রস্তুত হবো সেটা সময় বলে দেবে।'

আরও পড়ুন

×