ঢাকা রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

শারদ উৎসবে গামছা ফ্যাশন

শারদ উৎসবে গামছা ফ্যাশন

--

প্রকাশ: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১২:০০

স্নানের পর যা দিয়ে চুল মোছা হয়, সেটি গামছা। এখন গামছা কেবল চুল মোছার কাজেই ব্যবহূত হচ্ছে না; এটি দিয়ে তৈরি হচ্ছে কামিজ, টপস, কুর্তি, ফতুয়া, শাড়িসহ বিভিন্ন পোশাক। সারাবছর তো বটেই, বিভিন্ন উৎসবেও পাওয়া যাচ্ছে গামছা ফ্যাশনের পোশাক। লিখেছেন অরণ্য সৌরভ

গামছা ফ্যাশনকে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দিয়েছেন ফ্যাশন ডিজাইনার ও নকশাকার বিবি রাসেল। এশিয়ার বিভিন্ন দেশসহ ইউরোপ ও অন্যান্য মহাদেশে দেশীয় ঐতিহ্যকে পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। শুধু পোশাক নয়, বালিশের কভার, সোফার কভার, দরজা-জানালার পর্দাতেও ব্যবহার করা হচ্ছে গামছার কাপড়। বিবি রাসেলকে অনুসরণ করে এখন অনেকেই গামছা ফ্যাশন নিয়ে কাজ করছেন। বাঙালির দেশীয় ঐতিহ্যকে লালন করার চেষ্টা করছেন। মোদ্দা কথা, গামছা বাঙালির পালা-পার্বণ সবখানে বিরাজ করছে। যুগের সঙ্গে গামছা পেয়েছে নতুনত্বে ভিন্ন মাত্রা। গামছা গরমে স্বস্তি ও আরাম বয়ে আনে। হাত-পা ও গা মোছার প্রধান উপকরণ হলেও গামছাকে এখন আর কোনোভাবেই হেলাফেলা করার সুযোগ নেই।
অনলাইন শপ যাদুর বাক্সের মেহবুব জাদু বলেন, 'বাঙালির ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে গামছা নিয়ে এই পদক্ষেপ। গামছা তৈরির কাপড়টাকে গামছায় ব্যবহূত রং এবং নকশার ধরন বজায় রেখে তৈরি করছি শাড়ি, পাঞ্জাবি, শার্ট, ফতুয়া, ব্লাউজ, সালোয়ার-কামিজ, স্কার্ট ও টুপি।'
গামছা চেকের শাড়ি এখন দারুণ ট্রেন্ডি। যে কোনো ব্লক কালার সুতি বা খাদির শাড়ির সঙ্গে কনট্রাস্টে পরুন গামছা চেক ব্লাউজ। এ তো গেল শাড়ি-ব্লাউজের কথা। এ ছাড়া লং ম্যাক্সি ড্রেস ফ্যাশনে গামছা চেক ড্রেস বেছে নিতে পারেন। অফ শোল্ডার সুতির লং গাউন দারুণ মানিয়ে যায়। এখন ইয়ং জেনারেশনের পছন্দের শীর্ষে লং স্কার্ট। সেখানেও অবশ্যম্ভাবী গামছা। ব্লক কালারের স্কার্টে থাকতে পারে গামছার পাড়। বা পুরো স্কার্টটাই চেকের ওপর হতে পারে। আবার প্লেইন সুতির স্কার্টের সঙ্গে টাইআপ করতে পারেন গামছা চেক টপও।
ফ্যাশন হাউস যাদুর বাক্স ফ্যাশনপ্রেমীদের জন্য তৈরি করছে ট্রেন্ডি এবং দেশীয় পোশাক, যার মধ্যে অন্যতম গামছার ব্যবহার। গামছা প্যাচওয়ার্ক হিসেবে কাজ করছেন মেহবুব জাদু। বিভিন্ন ধরনের গামছা ছোট ছোট করে কেটে অন্য পোশাকের সঙ্গে জুড়ে দিয়ে নতুন এ ধারা তৈরি করেছেন তিনি। তরুণ এই ফ্যাশন ডিজাইনার বলেন, 'এখনকার ট্রেন্ডসেটাররা বেশি মনোযোগী পশ্চিমা পোশাকের প্যাটার্নে তৈরি পোশাকে। দেশীয় সংস্কৃতির এই অনুষঙ্গটিকে ট্রেন্ডি পোশাকের সঙ্গে ধরে রাখতে নতুন এক কৌশল অবলম্বন করেছি মাত্র। কটন ফেব্রিকের সঙ্গে গামছা একটা প্যাটার্ন জুড়ে দিয়েছি।'
'আমার মাথায় সব সময় ছিল শুধু গামছা না ব্যবহার করে এর সঙ্গে আরও কী কী যুক্ত করা যায়। যেহেতু গামছা ফোক সংস্কৃতির অংশ, এর সঙ্গে সেই ফর্মের অনুষঙ্গ, যেমন- কড়ি বা কাঠপুঁতি মানানসই। সেদিকে নজর রেখেই পূজায় গামছার পোশাক তৈরি করেছি।' যোগ করেন মেহবুব জাদু।
সাধারণত গামছা কাঁচা রং দিয়ে তৈরি হয়। তাই অধিকাংশ গামছা কয়েকবার ধোয়ার পর রং ওঠে। তবে পোশাকের জন্য গামছা আলাদাভাবে তৈরি করা হয়। এ ক্ষেত্রে তাঁতিরা গামছায় পাকা রং ব্যবহার করেন। ফলে রং ওঠার ভয় অনেকটা কম থাকে। যেটুকু ওঠে তাতে পোশাকের ক্ষতি হওয়ার শঙ্কা থাকে না। বাজারের লাল, নীল, সবুজ বা হলুদ রঙের গামছার সঙ্গে পোশাকের প্রয়োজনে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন রঙের গামছা। এ ছাড়া গামছার সবচেয়ে নজরকাড়া দিক হলো এর উজ্জ্বল রং আর নজরকাড়া চেক। গামছার সব সৌন্দর্য লুকিয়ে আছে যেন এই রং আর চেকেই। ছোট, বড়, লম্বা, আড়াআড়ি কত রকম চেকই যে আছে! তেমনি রয়েছে নানা রং। লালের সঙ্গে শুভ্র সাদা, তো গোলাপির সঙ্গে ময়ূরকণ্ঠী নীল, ফাল্কগ্দুনের লাল-হলুদ, তো কখনও আবার রংধনুর সাত রং।
দুর্গোৎসবে পূজা ও প্রকৃতিসংশ্নিষ্ট বিভিন্ন থিম দেখা গেছে ফ্যাশন হাউস যাদুর বাক্সের বিভিন্ন পোশাকে। যাদুর বাক্সের ডিজাইনার ও কর্ণধার মেহবুব জাদু বলেন, 'রং ও পূজা মানেই যেন চোখে ভাসে লাল-সাদা। এবার পূজার সব পোশাকে লাল-সাদা গামছা ব্যবহার করেছি। সঙ্গে সোনালি রঙের ব্লকপ্রিন্টের কাজকে প্রাধান্য দিয়েছি। গামছার সঙ্গে ব্লকপ্রিন্ট ব্যবহার করে গামছার পোশাককে একটু ভিন্নভাবে উপস্থাপন করতে চেষ্টা করেছি।'
যাদুর বাক্সের পোশাকের তালিকায় শাড়ি, ধূতি, পাঞ্জাবি, আনারকলি, লেহেঙ্গা, কটি রয়েছে। ডিজাইনে প্যাটার্নে ভিন্নতা আনতে গামছার সঙ্গে কুরুকাটার কাজ ও সুতি লেস, সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য পুঁতি, কয়েন, পাইপ, ঘণ্টা, বাড়ি, ঝিনুকসহ বিভিন্ন ধরনের আকর্ষণীয় ম্যাটেরিয়াল ব্যবহার করা হয়েছে।
'যাঁরা গামছার পোশাক পছন্দ করে, তাঁরা বিভিন্ন উৎসবে গামছার পোশাককেই প্রাধান্য দিয়ে থাকে। এ ছাড়া এবারের পোশাকের রং, ডিজাইন, প্যাটার্ন এমনভাবে সাজানো হয়েছে, যেন সব বয়স ও রুচির ক্রেতা ব্যবহার করতে পারে। যেহেতু পূজার সময় গরম থাকবে সেহেতু পোশাকের কাপড়ে আরামকে প্রাধান্য দিয়েছি।' যোগ করেন যাদুর বাক্সের মেহবুব জাদু।
পোশাক ও ছবি :যাদুর বাক্স

আরও পড়ুন

×