ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

ভারতের রূপকথা

চালাক লোক ও রাজার গল্প

চালাক লোক ও রাজার গল্প

বাংলা করেছেন হাসান হাফিজ, এঁকেছেন তন্ময় শেখ

প্রকাশ: ০৩ নভেম্বর ২০২২ | ১২:০০

এক দেশে ছিলো এক রাজা। খুব ভালোই দিন কাটছিলো রাজার। একদিন রাজপ্রাসাদের বাইরে প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়েছেন রাজামশাই। হঠাৎ দেখেন, এক লোক দাঁড়িয়ে আছেন। তাঁর হাতে আবার খুব সুন্দর ও নাদুসনুদুস একটি মোরগ। রাজাকে দেখেই লোকটা কুর্নিশ করে জানান, 'মহারাজ, আপনার নামে লটারি ধরে এই মোরগটা জিতে নিয়েছি। এটি আপনার। দয়া করে গ্রহণ করুন।'
রাজা মুচকি হেসে বললেন, 'বাহ, বেশ বেশ। তা বাপু, আমার পোষা জীবজন্তু, পাখির খোঁয়াড় যে দেখাশোনা করে, সেই লোকের কাছে মোরগটা রেখে যাও।'
লোকটি তাই করেন।
কিছুদিন পরের ঘটনা। আবার সেই লোকটির সঙ্গে দেখা রাজা মশাইয়ের। এবার তাঁর সঙ্গে একটি ছাগল। রাজাকে দেখেই এগিয়ে এসে অভিবাদন জানিয়ে লোকটি বলেন, 'মহারাজ, আপনার নামে আবারও আমি লটারি ধরেছিলাম। তাতে এই ছাগলটি জিতেছি। এটি আপনার। দয়া করে গ্রহণ করুন। আমি ধন্য হবো তবে।'
রাজা মশাই আদেশ দেন, 'বেশ করেছো বাছা। আমার গরু-ছাগলের খামারে এটি রেখে যাও।'
কয়েক সপ্তাহ পর। আবারও এসেছেন লোকটি। তবে এবার আর একা আসেননি। সঙ্গে নিয়ে এসেছেন আরও দু'জনকে। রাজার সঙ্গে দেখা হতেই কুর্নিশ করেন লোকটি। মাথা চুলকে বলেন, 'মহারাজ, আপনার নামে লটারি ধরেছিলাম। এই দুইজনের প্রত্যেকের কাছে পাঁচ হাজার টাকা করে হেরেছি। আমার কাছে কোনো টাকা-পয়সা নেই...।'
রাজা বুঝতে পারলেন, আগে কী বোকামিই না তিনি করেছেন! ভুল করেছেন ভীষণ। এখন মাশুল দিতে হবে। আরও এও বুঝতে পারলেন, লোকটি বড্ড চালাক। তবু লোকটিকে উদ্ধার না করে উপায় নেই। ইচ্ছে ছিলো না রাজার। তবু দু'জনের পাওনা মেটালেন। কিছুদিন পর ফের দু'জন লোক নিয়ে হাজির হলেন চালাক লোকটি। এবারও কুর্নিশ করে বলেন, 'মহারাজ, আপনার নামে লটারি ধরেছিলাম। এই দুইজনের প্রত্যেকের কাছে দশ হাজার টাকা করে হেরেছি। আমার কাছে কোনো টাকা-পয়সা নেই...।'
রাজা বুঝতে পেরে চালাক লোকটিকে ধমক দিয়ে বললেন, 'খবরদার। আর কখনোই আমার নামে লটারি ধরবে না তুমি। যদি ধরো, তবে এর শাস্তি পেতে হবে তোমাকে। কেউ তোমাকে তখন বাঁচাতে পারবে না!'
চালাক লোকটি সেই রাজ্য ছেড়ে নতুন রাজ্যের পথ ধরলেন। যদি আবারও কোনো রাজা পাওয়া যায়!

আরও পড়ুন

×