ঢাকা বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

শেয়াল মামার অহংকার

শেয়াল মামার অহংকার

কোলাজ

মাহজাবিন অহনা

প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারি ২০২৪ | ১৭:২৯

এক শেয়াল, তার ছিলো এক জ্যাকেট। সে থাকতো এক গভীর জঙ্গলে। তার নিজের জ্যাকেট নিয়ে ছিলো খুব অহংকার। পশুদের সে ভেংচাতো। পশুদের নিয়ে মজা করতো। একদিন সে কাদায় পড়ে গেলো। তার জ্যাকেট নোংরা হয়ে গেলো। তার অহংকারও ভেঙে গেলো!

পশুরা তাকে নিয়ে যখন হাসাহাসি করতে লাগলো, তখন সে তার ভুল বুঝতে পারলো। সে ক্ষমা চাইলো। সবাই তাকে ক্ষমা করে দিলো কিন্তু চন্দু নামের কুকুর তাকে ক্ষমা করে না। সে তাকে রাগাতেই থাকলো। শেয়াল একটা নোংরা প্রদীপ পেলো। সে জানতো না যে সেটা প্রদীপ। পরিষ্কার করতে ঘষা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেটা থেকে জিন বের হয়ে এলো। তখন জিন বললো, ‘হুকুম দেন প্রভু– আপনার যে কোনো ৩টি ইচ্ছে বলুন। পূরণ করে দেব।’ শেয়াল বললো, ‘প্রথম ইচ্ছে হলো, আমার জ্যাকেট আগের মতো করে দাও। দ্বিতীয় ইচ্ছে হলো, আমার অহংকার বের করে দাও। তৃতীয় ইচ্ছে হলো, সবার সঙ্গে যেন কুকুর চন্দুও আমায় ক্ষমা করে দেয়।’ জিন তখন সব ইচ্ছে পূরণ করে দিল এবং শেয়াল সব পশুর সঙ্গে খুশিতে জীবন কাটাতে লাগলো।

বয়স : ২+৩‍+৩ বছর; চতুর্থ শ্রেণি, মণীষা ভবন কেজি কেজি স্কুল, নাটোর

আরও পড়ুন

×